kalerkantho


টঙ্গীতে আগুন : উদ্ধার কাজে সাধারণ মানুষ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১২:৩৭



টঙ্গীতে আগুন : উদ্ধার কাজে সাধারণ মানুষ

টঙ্গীতে বিসিক শিল্পনগরী এলাকার ট্যাম্পাকো ফয়েলস কারখানায় বয়লার বিস্ফোরণে সৃষ্ট আগুন নিয়ন্ত্রণে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীদের সঙ্গে সাধারণ মানুষও কাজ করছেন। এর আগে রানা প্লাজা ধসের ঘটনায় সাধারণ মানুষ ব্যাপকভাবে উদ্ধার কাজে অংশ নেন। আজ শনিবার সকাল ৬টার দিকে এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। বেলা সাড়ে ১১টায় এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত আগুন পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হয়নি। এখন পর্যন্ত ২০ জনের মৃত্যুর খবর জানা গেছে।

এদিকে ফায়ার সার্ভিস কাজে অসন্তোষ প্রকাশ করে ওই কারখানায় কর্মরত শ্রমিকদের স্বজন ও সাধারণ মানুষজন ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। তারা বলছেন, আগুন লাগার সাড়ে ৪ ঘণ্টা পরও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ভেতরে ঢুকেনি। তারা এখনও বাইরে থেকে শুধু পানি ছিটিয়ে যাচ্ছে। তবে ফায়ার কর্মীরা বলছেন, আগুন পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে আসেনি এবং ওই ভবনটি এখনও ধসে পড়ছে। তাই এখনও ভেতরে প্রবেশ করা যাচ্ছে না।

এদিকে বিস্ফোরণে চারতলা ওই ভবন প্রায় ৮০ ভগ ধসে পড়েছে। শুধুমাত্র একপাশে একটা অংশ দাঁড়িয়ে রয়েছে। ওই অংশের একটা পানির ট্যাংকের মধ্যে ১০-১২ শ্রমিক আটকা রয়েছে বলে জানা গেছে। পানির ট্যাংকে আটকে থাকা শ্রমিক জুয়েল মোবাইল ফোনে তার স্বজনদের কাছে জানিয়েছেন, আগুনে তীব্রতা থেকে বাঁচতে তারা ওই ট্যাংকে আশ্রয় নিয়েছে। তাদের যেন দ্রুত উদ্ধার করা হয় সে জন্য আকুতি জানান।

কামাল হোসেন নামে এক বাসিন্দা জানান, ভেতর থেকে মানুষ ফোন করছে তাদের উদ্ধারের জন্য। কিন্তু ফায়ার সার্ভিসের লোকজন ভেতরে যাচ্ছে না। এ জন্য সাধারণ জনগণ ভেতরে ঢুকেছে। তিনি দাবি করেন, ভেতরে কয়েক শ শ্রমিক আটকা রয়েছেন। আলেয়া সুলতানা নামে এক নারী জানান, সাধারণ মানুষ যেভাবে অনিরাপদভাবে ভেতরে যাচ্ছে, তাতে তারাও ফিরে আসবে কী না তা বলা যাচ্ছে না।

 


মন্তব্য