kalerkantho


মেহেরপুরে চাঁদাবাজির অভিযোগে ৪ ছাত্রলীগ নেতা আটক

মেহেরপুর প্রতিনিধি   

৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৫:০২



মেহেরপুরে চাঁদাবাজির অভিযোগে ৪ ছাত্রলীগ নেতা আটক

মামলার প্রধান আসামি মাহফুজুর রহমান পোলেনের। তার ফেসবুক প্রোফাইল থেকে নেয়া

চাঁদাবাজির অভিযোগে দায়ের করা একটি মামলায় মেহেরপুর শহর ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মাহফুজুর রহমান পোলেনসহ চারজনকে আটক করেছে পুলিশ। আটক অন্য আসামিরা হলেন মেহেরপুর সরকারী কলেজে শাখা ছাত্রলীগের যুগ্ম সম্পদক তারিকুল ইসলাম লিখন, ছাত্রলীগ নেতা মাহফুজ ও জুয়েল।

বৃহস্পতিবার রাতে মেহেরপুর সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মেহেদী হাসানের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল সরকারি কলেজ গেটের সামনে থেকে তাদের আটক করে। মামলার বাকি চার আসামি পলাতক রয়েছে। পলাতক আসামিরা হলো শহিদুল, শিশির, মামুন ও রকি।

আটক মাহফুজুর রহমান পোলেন বর্তমানে জেলা মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্মলীগের আহ্বায়ক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন এবং তিনি সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম রসুলের ভাতিজা। পোলেনের বিরুদ্ধে মেহেরপুর সদর থানায় চাঁদাবাজি, হামলা, ভাঙচুরসহ বিভিন্ন অপরাধে ৮টি মামলা রয়েছে।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, পাবনা শহরের আবু তালেব নামের এক ওষুধ ব্যবসায়ী মেহেরপুর থেকে ওষুধ কিনে শ্যামলী পরিবহনের একটি গাড়িযোগে বাড়ির যাওয়ার উদ্দেশে বৃহস্পতিবার বিকালে বাসস্ট্যান্ডে অবস্থিত শ্যামলী কাউন্টারে যান। এ সময় সাবেক পোলেনসহ আসামিরা ওই ওষুধ ব্যবসায়ীর নিকট ১০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে। এ ঘটনায় ওষুধ ব্যবসায়ী আবু তালিব মেহেরপুর সদর থানায় হাজির হয়ে আটজনকে আসামি করে একটি অভিযোগ দায়ের করেন। ওই অভিযোগের প্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার রাতে মেহেরপুর সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মেহেদী হাসানের নেতৃত্বে পুলিশের একটি টিম পোলেনসহ চারজনকে আটক করেন।

মামলার বাকি চার আসামি পলাতক রয়েছে।

মেহেরপুর সদর থানার ওসি ইকবাল বাহার চৌধুরী বলেন, আটক আসামিদের ২০০২ সালের দ্রুত বিচার আইনে মামলা দিয়ে শুক্রবার সকালে আদালতের মাধ্যমে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে। তিনি আরো জানান, মামলার প্রধান আসামি পোলেনের বিরুদ্ধে সদর থানায় বিভিন্ন অভিযোগে ৮টি মামলা রয়েছে।


মন্তব্য