kalerkantho

শুক্রবার । ৯ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


তদন্ত কমিটি গঠন

মুরাদনগরে ২২টি গাছ কাটলেন প্রতিষ্ঠান প্রধান

মুরাদনগর (কুমিল্লা) প্রতিনিধি    

৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৪:১১



মুরাদনগরে ২২টি গাছ কাটলেন প্রতিষ্ঠান প্রধান

বন বিভাগের জেলা কমিটির অনুমতি নেওয়া হয়নি। জেলা প্রশাসক ও উপজেলা প্রশাসনও এ বিষয়ে কিছু জানেন না।

অথচ মাদ্রাসা প্রাঙ্গণের ৩০ বছর বয়সী ১৫টি মেহগনি এবং সাতটি রেইনন্ট্রি কেটেছে মাদ্রাসা পরিচালনা পর্ষদ। সন্ধ্যার পরও চলেছে এ গাছ কাটার কাজ।

গতকাল বুধবার রাত থেকে কুমি্ল্লার মুরাদনগর উপজেলার কাজিয়াতল দক্ষিণপাড়া ইসলামিয়া দাখিল মাদ্রাসা প্রাঙ্গণের ২২টি গাছ কাটা হয়েছে।

এদিকে, গাছগুলো কাটার কারণে মাদ্রাসার সৌন্দর্য ও পরিবেশ নষ্ট হয়েছে বলে ক্ষোভ প্রকাশ করেছে শিক্ষার্থীরা। ২২টি গাছের মূল্য লক্ষাধিক টাকা হবে বলেও জানালেন স্থানীয়রা।

এ বিষয়ে কাজিয়াতল দক্ষিণপাড়া ইসলামিয়া দাখিল মাদ্রাসার সুপার আবদুস সোবহান বলেন, "মাদ্রাসার উন্নয়নের জন্য গাছ কাটা হয়েছে। " তিনি বলেন, "মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটির বৈঠকের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী গাছগুলো কাটা হয়েছে। তবে, কুমিল্লা বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মো. মাহবুবুর রহমান জানান, তাঁদের কাছ থেকে এ বিষয়ে কোনো অনুমতি নেওয়া হয়নি। অনুমতি চেয়ে আবেদনও করা হয়নি।

মুরাদনগর উপজেলা ভারপ্রাপ্ত বন কর্মকর্তা মো. শাহজাহান মিয়া জানান, গাছ কাটার ব্যাপারে বনবিভাগ বা জেলা বন বিভাগের জেলা কমিটির অনুমতি প্রয়োজন হয়। এক্ষেত্রে অনুমতি নেওয়া হয়নি।

মুরাদনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মনসুর উদ্দিন জানান, গাছ কাটার অভিযোগ পেয়েছি। উপজেলা মাধ্যমিক কর্মকর্তা ও বনকর্মকর্তাকে তিন দিনের মধ্যে এ বিষয়ে রিপোর্ট প্রদানের জন্য কমিটি করে দিয়েছি।

 


মন্তব্য