kalerkantho

মঙ্গলবার । ৬ ডিসেম্বর ২০১৬। ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


বান্দরবানের রোয়াংছড়িতে প্রতিপক্ষের হামলায় দুইজন খুন

নিজস্ব প্রতিবেদক, বান্দরবান    

৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৪:৪০



বান্দরবানের রোয়াংছড়িতে প্রতিপক্ষের হামলায় দুইজন খুন

বান্দরবান জেলার রোয়াংছড়িতে গতকাল মঙ্গলবার রাতে দুইজন খুন হয়েছেন।

পুলিশ জানায়, উপজেলা সদর থেকে প্রায় ১৫ কিলোমিটার দূরে আলেক্ষ্যং ইউনিয়নের আংগ্যা ঝিরি গ্রামে ইউনিয়ন সন্ত্রাস দমন কমিটির সাধারণ সম্পাদক থোয়াই চি মংয়ের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন উ গ্য হ্লা মং মারমা (৩৫) ও আপ্রু মং মারমা (২৫)।

সূত্র জানায়, চাঁদার দাবিতে থোয়াই চি মংকে হামলা করতে গিয়ে তার সমর্থকদের পাল্টা হামলায় নিহত হয়েছেন ওই দুইজন। পুলিশ আজ বুধবার সকালে তাদের লাশ উদ্ধারা করে।

বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদ সদস্য ও আলেক্ষ্যং এলাকার বাসিন্দা কাঞ্চনজয় তঞ্চঙ্গ্যা জানান, নিহত দুইজন পার্শ্ববর্তী লামা উপজেলার বাসিন্দা। স্থানীয়ভাবে তারা চাঁদাবাজি ও সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। তবে তাদের রাজনৈতিক পরিচয় সম্পর্কে তিনি কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি।

বান্দরবানের পুলিশ সুপার সঞ্জিত কুমার রায় বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

পুলিশ সুপার জানান, জেলা প্রশাসক দিলীপ কুমার বণিকসহ তিনি ঘটনাস্থলে রয়েছেন। সেখান থেকে ফিরে বিস্তারিত জানাবেন।

এদিকে, বান্দরবান জেলা সন্ত্রাস দমন কমিটির সাধারণ সম্পাদক এ কে এম জাহাঙ্গীর জানান, এর আগে সন্ত্রাসীরা মোবাইল ফোনে বেশ কয়েকবার থোয়াই চি মংয়ের কাছে চাঁদা দাবি করে এবং বিভিন্ন ধরনের হুমকি দেয়। বিষয়টি পুলিশ এবং নিকটস্থ সেনা ক্যাম্পে অবহিত করায় ক্ষিপ্ত হয়ে গতকাল মঙ্গলবার রাতে সন্ত্রাসীরা থোয়াই চি মংয়ের বাড়িতে হামলা চালায়। এ সময় আত্মরক্ষার্থে তার লোকজন তাদেরকে প্রতিহত করে। একপর্যায়ে হামলা-পাল্টাহামলায় মারা যান তারা।

এ কে এম জাহাঙ্গীর জানান, জেলা, উপজেলা, ইউনিয়ন এবং গ্রামে-গ্রামে সন্ত্রাস দমন কমিটি গঠন করার পর থেকে সন্ত্রাসীরা কমিটির নেতৃবৃন্দের ওপর নানা ধরনের চাপ দিয়ে আসছে। এর আগে মার্চ মাসে তারা সদর উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা মং পু মারমাকে অপহরণ করে। এখনো তাঁর কোনো খোঁজ মেলেনি।

 


মন্তব্য