kalerkantho

মঙ্গলবার । ৬ ডিসেম্বর ২০১৬। ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


বিক্রি শুরুর দুই ঘণ্টায় শেষ ফিরতি ট্রেন টিকিট!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৩:২৬



বিক্রি শুরুর দুই ঘণ্টায় শেষ ফিরতি ট্রেন টিকিট!

রাজশাহীতে ঈদ পরবর্তী ট্রেনের ফিরতি টিকিটের জন্য হাহাকার করছেন ট্রেনযাত্রীরা। আজ মঙ্গলবার সকাল ৮টায় শুরু হয় ফিরতি ট্রেন টিকিট বিক্রি।

তবে বিক্রির দুই ঘণ্টার মধ্যেই শেষ হয়ে যায় টিকিট বিক্রি। তবে ভোর থেকেই দীর্ঘ লাইনে দাঁড়ান ট্রেনের ফিরতি টিকিট প্রত্যাশীরা। কিন্তু সকাল ১০টার পর পরই শেষ হয়ে যায় ১৫ সেপ্টেম্বরের আগাম ফিরতি টিকিট। এতে লাইনে দাঁড়িয়ে থাকা লোকজনের মধ্যে ক্ষোভ দেখা দেয়। রাজশাহী রেলওয়ে স্টেশন সূত্রে জানা যায়, ঈদ পরবর্তী ট্রেনের ফিরতি টিকিট বিক্রি শুরুর কথা ছিল সোমবার থেকে। তবে ঈদ একদিন পেছানোয় আজ দিন ধার্য করা হয়।

মঙ্গলবার দেওয়া হয় ১৫ সেপ্টেম্বরের ফিরতি টিকিট। আগামীকাল বুধবার দেওয়া হবে ১৬ সেপ্টেম্বরের ফিরতি টিকিট, বৃহস্পতিবার ১৭ সেপ্টেম্বরের, শুক্রবার ১৮ সেপ্টেম্বরের এবং শনিবার পাওয়া যাবে ১৯ সেপ্টেম্বরের ফিরতি টিকিট। কিন্তু আগাম টিকিট বিক্রির আগেই উধাও হয়ে যাচ্ছে। নির্ধারিত দিনে টিকিটের জন্য লম্বা লাইনে দাঁড়িয়ে থাকলেও বিক্রি শুরুর ১/২ ঘণ্টার মধ্যেই কাউন্টার থেকে বলা হচ্ছে টিকিট শেষ হয়ে গেছে। ফলে যাত্রীদের মধ্যে অসন্তোষ দেখা দিয়েছে। স্টেশনে এ নিয়ে আজও ক্ষুব্ধ হয়েছেন টিকিট প্রত্যাশীরা।     

অভিযোগ রয়েছে টিকিট ছাড়ার সঙ্গে সঙ্গে কাউন্টার থেকেই টিকিট কেটে রাখছে রেলওয়ের কতিপয় অসাধু কর্মচারী। এসি, নন এসি টিকেটের তালিকা তৈরি করা হচ্ছে আগেই। ফলে বিক্রি শুরুর পর অল্প সময়ের মধ্যেই টিকিট শেষ হয়ে যাচ্ছে। কিন্তু প্রমাণ না থাকায় কেউ তাদের ধরতে পারছে না। তবে পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের সুপারিনটেন্ডেট জিয়াউর রহমান দাবি করে বলেন, এমন তথ্য তার জানা নেই। ঈদের টিকিট কালোবাজারি ও অসাধু চক্র ঠেকাতে তাদের বিশেষ ব্যবস্থা রয়েছে। তাদের মধ্যে যদি কেউ জড়িত থাকে এবং তা ধরা পড়ে তাহলে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানান তিনি।

 


মন্তব্য