kalerkantho

সোমবার । ৫ ডিসেম্বর ২০১৬। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


নবাবগঞ্জে স্কুলছাত্রীর শরীরে দার্য পদার্থ নিক্ষেপ, আটক ১

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২৩:৩৬



নবাবগঞ্জে স্কুলছাত্রীর শরীরে দার্য পদার্থ নিক্ষেপ, আটক ১

দিনাজপুরের নবাবগঞ্জে ঘুমন্ত স্কুলছাত্রীর শরীরে দার্য পদার্থ নিক্ষেপের ঘটনায় এক কিশোরকে আটক করে জেলহাজতে প্রেরণ করেছে পুলিশ।  আজ সোমবার ভোরে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ জানায়, সোমবার ভোররাত সাড়ে ৪টায় উপজেলার ২ নম্বর বিনোদনগর ইউনিয়নের কলমদারপুর (কদমতলী) গ্রামের শাহিনুর ইসলামের মেয়ে ও বিনোদনগর স:প্রা: বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেণির ছাত্রীর শরীরে জানালা দিয়ে দার্য পদার্থ নিক্ষেপ করে একই গ্রামের মানিকের পুত্র নাছিম(১৪)। এতে মেয়েটির গলার নীচে ও ২ হাতে আঙ্গুলের অগ্রাভাগে ফোসকা পড়ে যায়। পরে থানায় সংবাদ দিলে অফিসার ইনচার্জ ইসমাইল হোসেন ঘটনাস্থলে গিয়ে ভিকটিমকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে থানা হেফাজতে নেয়।
 
এ বিষয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক আরবাব সরকার জানান, দার্য পদার্থ ছুড়ে দেওয়ায় বড় ধরনের বার্ন এর ক্ষত হয়নি। এ ঘটনায় স্কুলছাত্রীর পিতা শাহিনুর ইসলাম বাদী হয়ে নাবালিকা মেয়েকে দার্য পদার্থ ছোড়ার অপরাধে নবাবগঞ্জ থানায় একটি মামলা রুজু করেছে।

মামলার বিষয়ে জানতে থানায় যোগাযোগ করা হলে অফিসার ইনচার্জ ইসমাইল হোসেন জানান, ওই মামলায় অভিযুক্ত নাছিমকে আটক করে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। এ ঘটনায় নবাবগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার বজলুর রশীদ, সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা শরিফ হোসেন, ওয়াহিদুজ্জামান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

এদিকে মেয়েটির মা অভিযোগ করে জানান, ওই বখাটে ছেলে প্রায়ই তার মেয়েকে উত্যক্ত করত।  


মন্তব্য