kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৮ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে অনুপস্থিত ১৪৬ শিক্ষার্থী

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ২২:৩২



চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে অনুপস্থিত ১৪৬ শিক্ষার্থী

দীর্ঘদিন ধরে অনুপস্থিত থাকা ১৪৬ জন শিক্ষার্থীর তালিকা করেছে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। নতুন এ তালিকায় বিভিন্ন বিভাগের ছাত্রীরাও আছেন।

এই শিক্ষার্থীরা সর্বনিম্ন দেড় মাস থেকে সর্বোচ্চ দুই বছর পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ে আসছেন না। তদন্তের স্বার্থে এসব শিক্ষার্থীর নাম এখনই প্রকাশ করতে চাচ্ছে না কর্তৃপক্ষ। কর্তৃপক্ষের দাবি, এ তালিকা এখনও পর্যন্ত আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে জমা দেওয়া হয়নি। আজ সোমবার সন্ধ্যায় এসব তথ্য নিশ্চিত করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) কামরুল হুদা।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসন সূত্র জানায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪৩টি বিভাগ ও ৫টি ইনস্টিটিউট একাডেমিক শাখায় ‘অনুপস্থিত’ শিক্ষার্থীদের তালিকা জমা দেয়। তালিকায় থাকা প্রত্যেক শিক্ষার্থীর সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করে একাডেমিক শাখা। তাঁদের মধ্যে ১৪৬ জন শিক্ষার্থীর সঙ্গে যোগাযোগ করা যায়নি। পরে ১৪৬ জনের নাম বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) কামরুল হুদার কাছে হস্তান্তর করা হয়। রেজিস্ট্রার ওই তালিকা প্রক্টরিয়াল বডির কাছে হস্তান্তর করেন।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের (ভারপ্রাপ্ত) রেজিস্ট্রার কামরুল হুদা বলেন, অনুপস্থিত শিক্ষার্থীদের মধ্যে যাদের সঙ্গে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি তাঁদের তালিকা প্রক্টরিয়াল বডির কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর মোহাম্মদ আলী আজগর চৌধুরী বলেন, ‘এ তালিকা এখনও আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে হস্তান্তর করা হয়নি। তালিকাটি যাচাই-বাছাই শেষে ঈদুল আজহার ছুটির পর আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে হস্তান্তর করা হবে। ’

এর আগে ছয়জন ‘অনুপস্থিত’ শিক্ষার্থীর তালিকা করে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। এ তালিকা গত ৭ আগস্ট হাটহাজারী থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়। এরপর ওই ছয়জন বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ও হাটহাজারী থানা পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। এর পরে গুলশান হামলার অন্যতম পরিকল্পনাকারী হিসেবে বিশ্ববিদ্যালয়ের আরবি বিভাগের শিক্ষার্থী নুরুল ইসলাম ওরফে মারজানের নাম আসে।  


মন্তব্য