kalerkantho


বান্দরবানে সন্দেহভাজন জঙ্গি গ্রেপ্তারের ঘটনায় কিছুই বলছে না পুলিশ

নিজস্ব প্রতিবেদক, বান্দরবান   

৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৮:১৫



বান্দরবানে সন্দেহভাজন জঙ্গি গ্রেপ্তারের ঘটনায় কিছুই বলছে না পুলিশ

বান্দরবানের আলীকদম উপজেলা সদরের রেফার ফাঁড়ি বাজার থেকে মুসলিম উদ্দিন (৫০) নামে সন্দেহভাজন এক জঙ্গিকে গ্রেপ্তার করেছে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। আফগান ফেরত মুসলিমের বাড়ি লামা উপজেলার শিলের তুয়া গ্রামে।
 
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, গত শনিবার রাতে সাদা পোষাকের ডিবি পুলিশ আকস্মিক এক অভিযান চালিয়ে মুসলিম উদ্দিনের মালিকানাধীন ফার্মেসী থেকে অন্য তিনজনসহ তাকে আটক করে লামা থানায় নিয়ে যায়। পরদিন রবিবার দুপুরে মুসলিম ছাড়া অপর তিনজনকে ছেড়ে দেওয়া হয়। তবে আলীকদম বা লামা থানা এসব বিষয়ে কোন তথ্য জানাতে রাজি হচ্ছে না।
 
লামার স্থানীয় সূত্রগুলো জানায়, বছর দশেক আগে মুসলিম উদ্দিন বাড়ির পাশের শিলের তুয়া বাজারে ফার্মেসী ব্যবসা শুরু করে। সম্প্রতি সে শিলের তুয়া থেকে ৩ কিলোমিটার দূরে আলীকদম উপজেলার রেফার ফাড়ি বাজারে ফার্মেসী স্থানান্তর করে ব্যবসা করে আসছে। স্থানীয় লোকজন তাকে ‘আফগান ফেরত মুসলিম উদ্দিন’ নামে চিনলেও তার রাজনৈতিক পরিচয় সম্পর্কে তারা কিছুই বলতে পারছে না।
 
সূত্র আরো জানায়, মুসলিম উদ্দিনের পিতা আবদুল গফুর একজন সাধারণ কৃষক। তবে তার শশুর (নাম এখনও জানা যায়নি) তাবলিগ জামায়াতের অনুসারী।
 
এদিকে নাম প্রকাশ না করার শর্তে বান্দরবান জেলা পুলিশের একটি সূত্র জানায়, পুলিশের কাছে আটক অন্য জঙ্গিদের কাছ থেকে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে ঢাকার ডিবি পুলিশ স্থানীয় কোন থানাকে পূর্বাহ্নে অবহিত না করে ঝটিকা অভিযান চালিয়ে মুসলিম উদ্দিনকে গ্রেপ্তার করে। শনিবার রাতেই তাকে ঢাকায় নিয়ে যায় ডিবি পুলিশ।


মন্তব্য