kalerkantho


শেরপুরে হোটেল-রেস্তোরাঁয় ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান, অর্থদণ্ড

শেরপুর প্রতিনিধি    

৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৭:৫৭



শেরপুরে হোটেল-রেস্তোরাঁয় ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান, অর্থদণ্ড

শেরপুরের শ্রীবরদীতে আজ সোমবার বিভিন্ন হোটেল রেস্তোরাঁয় অভিযান চালিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ সময় ভেজাল ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাবার তৈরি, পণ্য উৎপাদন, বিক্রি এবং মূল্যতালিকা না থাকার অভিযোগে পাঁচ হোটেল-রেস্তোরাঁকে অর্থদণ্ড করা হয়েছে।

ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনে শ্রীবরদীর ইউএনও খালেদা নাসরিন ও ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক আরিফুল ইসলাম এ অভিযান পরিচালনা করেন। অভিযানকালে শ্রীবরদী বাজারের লাখো হোটেলের মালিক খলিলুর রহমানকে এক হাজার টাকা, তাতিহাটি বাজারের সেলিম মিয়ার হোটেলকে এক হাজার টাকা, ভায়াডাঙ্গা বাজারের সোনার বাংলা হোটেলের মালিক শওকত হোসেনকে এক  হাজার টাকা, রাজধানী হোটেলের মালিক গোলাপ হোসেনকে এক হাজার টাকা এবং  মিনা মিয়াকে এক হাজার টাকা অর্থদণ্ড দিয়ে জরিমানার অর্থ আদায় করা হয়। এ সময় এসব হোটেল-রেস্তোরাঁ থেকে পোড়া অস্বাস্থ্যকর তেল, ক্ষতিকর সোডা, রং ও বিভিন্ন কাঁচামাল এবং রান্না করা খাবার জব্দ করে তা ধ্বংস করা হয়।

এদিকে, ভায়াডাঙ্গা বাজারে হোটেল-রেস্তোরাঁয় অভিযানকালে বাজারের অন্য সব  দোকানপাট বন্ধ করে ব্যবসায়ীরা সটকে পড়েন। অভিযানে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের স্বাস্থ্য পরিদর্শক মুতাসিম বিল্লাহ আজাদ, ক্যাব জেলা কমিটির সম্পাদক হাকিম বাবুল, শ্রীবরদী থানার এসআই সাজিদুল ইসলামসহ পুলিশের একটি দল সঙ্গে ছিল।

জেলা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক আরিফুল ইসলাম জানান, জনমনে সচেতনতা সৃষ্টি এবং নকল ও ভেজাল খাবার তৈরি বন্ধ করতে নিয়মিত বাজার মনিটরিং কর্মসূচির অংশ হিসেবে এ ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়।

 


মন্তব্য