kalerkantho

শনিবার । ১০ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


বামনায় বাসের ধাক্কায় কলেজ শিক্ষক নিহত

বরগুনা প্রতিনিধি ও আঞ্চলিক প্রতিনিধি, পিরোজপুর    

৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৭:৪৮



বামনায় বাসের ধাক্কায় কলেজ শিক্ষক নিহত

বরগুনার বামনায় যাত্রীবাহী একটি বাসের সঙ্গে মোটরসাইকেলের মুখোমুথি সংঘর্ষে মো. কবীর হাজী (৫০) নামে এক কলেজ শিক্ষক নিহত হয়েছেন। আজ সোমবার দুপুর ১২টার দিকে উপজেলার চালিতাবুনীয়া-ডৌয়াতলা সড়কের চালিতাবুনিয়া গ্রামের জবেদ খানের বাড়ির সামনের সড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত কবীর হাজী বামনা উপজেলার বড় তালেশ্বর গ্রামের মৃত কাদের হাজীর ছেলে ও পার্শ্ববর্তী আমুয়া ডিগ্রি  কলেজের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক।

বাড়ি থেকে মোটরসাইকেল চালিয়ে কর্মসত্মলে যাওয়ার পথে তিনি এ দুর্ঘটনার শিকার হন। যাত্রীবাহী বাসটি নিয়ন্ত্রণহীন ভাবে চালাতে গিয়ে মোটরসাইকেলকে থাক্কা দিলে মোটরসাইকেল চালক কলেজ শিড়্গক ছিটকে পড়ে ঘটনাস্থলে নিহত হন। দুর্ঘটনার পর বিড়্গুব্ধ জনতা বাস চালক মো. আলী আকবর(৪২) ও হেলপার মো. ইয়ামিন(২৮) আটক করে । পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে বাসচালককে উদ্ধার করলেও হেলপার ইয়ামিন পালিয়ে যায়। এসময় বিড়্গুব্দ জনতা ঘাতক বাসে আগুন ধরিয়ে দেয়।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, নিহত কবীর হাজী প্রতিদিনের মতো নিজের মোটরসাইকেল চালিয়ে কলেজের উদ্দেশে রওনা হন। পথে চালিতাবুনীয়া-ডৌয়াতলা সড়কের চালিতাবুনিয়া গ্রামের জবেদ খানের বাড়ির সামনের সড়কে পৌঁছালে বিপরীত দিক থেকে আসা জুঁই পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাস মোটরসাইকেলটিকে ধাক্কা দেয়। এতে মোটরসাইকেলের চালক রাস্তায় ছিটকে পড়ে ঘটনাস্থলেই নিহত হন। উপস্থিত জনতা চালককে আটক করে বাসটিতে আগুন লাগিয়ে দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে জনতার হাতে আটক বাসের চালক আলী আকবরকে (৪২) উদ্ধার করে। এ সময় পালিয়ে যান হেলপার ইয়ামিন (২৮)।  

বামনা থানার ওসি মো. শাহাবুদ্দিন জানান, ঘটনাস্থল থেকে কলেজ শিক্ষকের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য তা বরগুনা জেলা মর্গে পাঠানো হয়েছে।


মন্তব্য