kalerkantho

শনিবার । ৩ ডিসেম্বর ২০১৬। ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ২ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


জেএমবির আত্মঘাতী স্কোয়াডের ৪ নারী সদস্য আটক

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৩:২৯



জেএমবির আত্মঘাতী স্কোয়াডের ৪ নারী সদস্য আটক

সিরাজগঞ্জের কাজিপুর উপজেলায় অভিযান চালিয়ে একই পরিবারের তিনজনসহ জামায়াতুল মুজাহিদীন বাংলাদেশের (জেএমবি) আত্মঘাতী স্কোয়াডের চার নারী সদস্যকে আটক করেছে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। এ সময় একটি কম্পিউটার ও বিপুল সংখ্যক জিহাদি বই উদ্ধার করা হয়।

রবিবার রাত আড়াইটার দিকে উপজেলার গান্ধাইল ইউনিয়নের পশ্চিম বরইতলা গ্রামে শীর্ষ জেএমবি নেতা ফরিদুল ইসলামের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়। আটক নারীরা হলেন বরইতলা গ্রামের আবু সাঈদের স্ত্রী ফুলেরা বেগম (৪৫), তার মেয়ে সাকিলা খাতুন (১৮) ও সালমা খাতুন (১৬) এবং প্রতিবেশী রফিকুল ইসলামের স্ত্রী রাজিয়া খাতুন (৩৫)।

গোয়েন্দা পুলিশের ওসি ওহেদুজ্জামান এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, জেএমবি নেতা ফরিদুলের বাড়িতে নতুন সদস্য সংগ্রহের উদ্দেশ্যে গোপন বৈঠক হচ্ছে, এমন খবরের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়। এ সময় বাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে জিহাদি বই, জিহাদি তথ্য সংরক্ষণে রাখা কম্পিউটার ও কিছু ইলেক্ট্রনিক্স যন্ত্রপাতি জব্দ করা হয়। পরে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে এরা জেএমবির আত্মঘাতী দলের সদস্য বলে স্বীকার করেন।

পুলিশ সুপার মিরাজ উদ্দিন আহম্মেদ বলেন, আটক নারীরা একই পরিবারের সদস্য এবং একে অপরের নিকটাত্মীয়। তারা আত্মঘাতী হামলার মাধ্যমে নাশকতামূলক কর্মকাণ্ডের প্রস্তুতি নিচ্ছিল। তাদের ভাষায় কাফের মুরতাদ ও ইসলামের শত্রুদের হত্যার উদ্দেশ্যে হিজরতে রওনার জন্য হাইকমাণ্ডের নির্দেশের অপেক্ষায় ছিলেন তারা।

এর আগে গত ২৪ জুলাই শহরের মাসুমপুর মহল্লায় অভিযান চালিয়ে জিহাদি বই গ্রেনেড তৈরির উপকরণসহ জেএমবির আরো ৪ নারী সদস্যকে আটক করা হয়। এ ছাড়াও বৃহস্পতিবার জেলার উল্লাপাড়া উপজেলা থেকে বিপুল পরিমাণ জিহাদি বইসহ জেএমবির তিন পুরুষ সদস্যকে আটক করে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ।

 


মন্তব্য