kalerkantho


শ্রীপুরে গৃহবধূর বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার, স্বামী আটক

মাগুরা প্রতিনিধি    

৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৭:৪০



শ্রীপুরে গৃহবধূর বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার, স্বামী আটক

মাগুরার শ্রীপুরে নদী থেকে চম্পা রানী বিশ্বাস (২০) নামে এক গৃহবধূর বস্তাবন্দি লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল শনিবার রাতে শ্রীপুর উপজেলার হাজরাতলা এলাকার কুমার নদী থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়।

এ ঘটনার সাথে জড়িত থাকার সন্দেহে পুলিশ নিহতের স্বামী বিজন বিশ্বাসকে (২৫) আটক করেছে।

এ ব্যাপারে শ্রীপুর থানার ওসি রেজাউল ইসলাম ও এলাকাবাসী জানান, নিহত চম্পা রানী বিশ্বাসের পিতা কমলেশ বিশ্বাস ও মাতা প্রভাতী রানী বিশ্বাস দীর্ঘদিন আগে ভারতে গিয়ে বসবাস করছেন। চম্পা তাদের হাজবাতলার বসতভিটায় একাই থাকতো। ৬ মাস আগে সে পার্শ্ববর্তী জয়নগর গ্রামের বিজন বিশ্বাসকে প্রেম করে বিয়ে করে। এই বিয়ের বিষয়টি মেনে নেয়নি বিজনের পরিবার। এ কারণে চম্পা বাবার বসতভিটাতেই থাকতো। বিজন সেখানে মাঝে মধ্যে আসতো। এরই এক পর্যায়ে গতকাল শনিবার নিখোঁজ হয় চম্পা। পরে ওইদিন সন্ধ্যায় বাড়ির নিকটবর্তী কুমার নদে মাছ ধরতে যাওয়া জেলেদের জালে বস্তাবন্দি একটি লাশ উঠে আসে।

যেটি প্রতিবেশীরা চম্পার লাশ হিসাবে সনাক্ত করে। বিষয়টি শ্রীপুর পুলিশকে জানালে রাত আটটার দিকে পুলিশ সেখানে গিয়ে লাশটি উদ্ধার করে মাগুরা সদর হাপাতাল মর্গে পাঠায়।  

ওসি রেজাউল আরো জানান, পরে এ ঘটনায় তার স্বামী বিজনকে জয়নগর গ্রাম থেকে আটক করা হয়। আটক বিজনের কাছ থেকে এ বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়া গেছে।  


মন্তব্য