kalerkantho

মঙ্গলবার । ৬ ডিসেম্বর ২০১৬। ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


আশুলিয়ায় কোটি টাকার জাল স্ট্যাম্প ও সরঞ্জামসহ আটক ৪

নিজস্ব প্রতিবেদক, সাভার (ঢাকা)    

৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৫:৪৫



আশুলিয়ায় কোটি টাকার জাল স্ট্যাম্প ও সরঞ্জামসহ আটক ৪

আশুলিয়ায় প্রিন্টিং প্রেস ব্যবসার আড়ালে জাল স্ট্যাম্প, জাল রেভিনিউ স্ট্যাম্প ও  জাল কোর্ট ফি স্ট্যাম্প প্রস্তুত করে দেশের বিভিন্ন স্থানে গোপনে বিক্রির সঙ্গে জড়িত অভিযোগে চারজনকে আটক করেছে র‍্যাব। এ সময় প্রায় এক কোটি টাকা মূল্যের জাল স্ট্যাম্প ও স্ট্যাম্প তৈরির সরঞ্জামাদি জব্দ করা হয়।

আজ শনিবার দুপুরে সিপিসি ২, র‍্যাব ৪ এর সাভার নবীনগর ক্যাম্প এ তথ্য জানায়।

আটক চক্রের মূল হোতা পান্না হাওলাদার (৩০) মানিকগঞ্জ জেলার সদর থানার ধলাই গ্রামের মৃত আব্দুর রশিদের ছেলে। তিনি আশুলিয়ার নয়ারহাট বাজারে অবস্থিত রাফি প্রিন্টিং প্রেস ২ এর মালিক। আটক অন্যরা হলেন প্রিন্টিং কারখানার মেশিনম্যান ও মানিকগঞ্জ জেলার হরিরামপুর থানার বগচর এলাকার শহীদ মোল্লার ছেলে সজিব মোল্লা (২৪), একই উপজেলার বহলাতী গ্রামের ফজলুর রহমানের ছেলে দেওয়ান মাসুদ রানা (২৬) এবং ঢাকার ধামরাই উপজেলার ভাদালিয়া এলাকার আদর আলীর ছেলে রাজ্জাক হোসেন (২০)।

র‍্যাব ৪, সিপিসি ২ এর ভারপ্রাপ্ত কম্পানি কমান্ডার আরিব বিন জলিল জানান, আশুলিয়ার নয়ারহাট বাজারে অবস্থিত রাফি প্রিন্টিং প্রেস ২ এর মালিক পান্না হাওলাদার দীর্ঘ দিন ধরে জাল নন জুডিশিয়াল স্ট্যাম্প, জাল রেভিনিউ স্ট্যাম্প এবং  জাল কোর্ট ফি স্ট্যাম্প প্রস্তুত করে দেশের বিভিন্ন স্থানে বিক্রি করে আসছিলেন। গতকাল শুক্রবার রাতে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ওই প্রিন্টিং প্রেস কারখানায় র‍্যাব ৪ এর একটি দল অভিযান চালায়। অভিযানে তথ্যের সত্যতা মিললে ওই প্রেসে তল্লাশি চালিয়ে প্রায় কোটি টাকা মূল্যের বিভিন্ন ধরনের জাল স্ট্যাম্প উদ্ধার করা হয়। এ সময় জব্দ করা হয় জাল স্ট্যাম্প তৈরি কাজে ব্যবহৃত বিভিন্ন সরঞ্জামাদি, মেশিন, লেজার প্রিন্টার, ডাইস এবং পজেটিভসহ উন্নত যন্ত্রপাতি। এ ছাড়া প্রিন্টিং প্রেস কারখানা থেকে দুজনকে আটক করা হয়। পরে তাদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে আরো দুজনকে আটক করা হয়।

র‍্যাবের ওই কর্মকর্তা আরো জানান, আটককৃতরা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তাদের তৈরি এসব জাল স্ট্যাম্প দেশের বিভিন্ন জেলায় আদালত ও অফিস সমূহে বিক্রির কথা স্বীকার করেছেন। এমনকি জাল স্ট্যাম্প তৈরির জন্য ব্যবহৃত কাগজগুলো আসল স্ট্যাম্প তৈরির কারখানা থেকে অসদুপায়ে তারা নিয়ে আসেন বলে জানিয়েছেন। প্রতারক চক্রের বাকিদের খুব শিগগির র‍্যাব আটক করতে পারবে বলেও জানানো হয়। আটককৃতদের বিরুদ্ধে আশুলিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করা হবে।

 


মন্তব্য