kalerkantho

শনিবার । ৩ ডিসেম্বর ২০১৬। ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ২ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


লক্ষ্মীপুরে প্রবাসীর স্ত্রীকে শ্বাসরোধে হত্যার অভিযোগ

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি   

২ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০৯:০৮



লক্ষ্মীপুরে প্রবাসীর স্ত্রীকে শ্বাসরোধে হত্যার অভিযোগ

লক্ষ্মীপুরে যৌতুক না পেয়ে কোহিনুর বেগম (৩০) নামে এক প্রবাসীর স্ত্রীকে শ্বাস রোধ ও শারিরিক নির্যাতনে হত্যার অভিযোগ উঠেছে শ্বশুর বাড়ির লোকজনের বিরুদ্ধে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় সদর উপজেলার মান্দারী ইউনিয়নের গন্ধব্যপুর গ্রাম থেকে তার লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

কোহিনুর একই গ্রামের সাফি উল্লাহর মেয়ে।

স্থানীয়রা জানায়, প্রায় ১৩ বছর আগে গন্ধব্যপুর গ্রামের গাজি মিয়ার ছেলে কামাল হোসেনের সঙ্গে একই গ্রামের সাফি উল্লাহর মেয়ে কোহিনুরের বিয়ে হয়। এরপর থেকেই শ্বশুর-শ্বাশুড়ির সঙ্গে কোহিনুরের কলহ চলছিল। এ নিয়ে একাধিকবার গ্রাম্য সালিসি বৈঠক হয়। বৃহস্পতিবার দুপুরে কোহিনুর আত্মহত্যা করেছে বলে প্রচার করে শ্বশুর-শ্বাশুড়ি ও দেবররা। পরে খবর পেয়ে চন্দ্রগঞ্জ থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তার লাশ উদ্ধার করে। কোহিনুরের এক ছেলে ও এক মেয়ে সন্তান রয়েছে।

নিহতের বাবা সাফি উল্লাহ জানান, বিয়ের পর থেকেই যৌতুকের দাবিতে তার মেয়েকে মারধর করা হতো। তিনি যৌতুক দিয়ে মেয়ের জামাইকে বিদেশ পাঠান। সম্প্রতি মেয়ের দেবর বিদেশ যাওয়ার জন্য তার কাছে এক লাখ টাকা দাবি করে। এ টাকা না পেয়ে মেয়েকে শারীরিক নির্যাতন ও শ্বাস রোধ হত্যা করে লাশ ঘরের আড়ের সঙ্গে ঝুলিয়ে রেখে আত্মহত্যা করেছে বলে প্রচারণা চালায়। তিনি এ হত্যার বিচার দাবি করেন।

এ ব্যাপারে চন্দ্রগঞ্জ থানার ওসি এ কে এম আজিজুর রহমান মিয়া জানান, মরদেহটি উদ্ধার করে সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্ত রিপোর্ট এলে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 


মন্তব্য