kalerkantho

সোমবার । ৫ ডিসেম্বর ২০১৬। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


শেরপুরে ইয়াবা পাচারকারীদের হামলায় চার বিজিবি সদস্য আহত

শেরপুর প্রতিনিধি    

১ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ১৮:৩৬



শেরপুরে ইয়াবা পাচারকারীদের হামলায় চার বিজিবি সদস্য আহত

শেরপুর জেলার সীমান্তবর্তী উপজেলার ঝিনাইগাতীর কাংশা ইউনিয়নের তাওয়াকুচা গ্রামে ইয়াবা পাচারকারীদের হামলায় চার বিজিবি সদস্য আহত হয়েছেন। গতকাল বুধবার রাত ৯টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন তাওয়াকুচা সীমান্ত ফাঁড়ির হাবিলদার ইলিয়াস হোসেন, ল্যান্স নায়েক মোশারফ হোসেন, ল্যান্স নায়েক মাহমুদ হাসান এবং সিপাহী শহিদুল ইসলাম। তাঁদেরকে  ঝিনাইগাতী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এ ব্যাপারে বিজিবির পক্ষ  থেকে ৩০ জনকে আসামি করে আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে ঝিনাইগাতী থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

বিজিবি'র নকশী সীমান্ত ফাঁড়ির কম্পানি কমান্ডার সুবেদার মো. নাজিম উদ্দিন জানান, বুধবার রাত ৮টার দিকে ঝিনাইগাতীর তাওয়াকুচা সীমান্ত ফাঁড়ির বিজিবি টহলদল ইয়াবা পাচারের সময় স্থানীয় রেহাল উদ্দিন (২২) নামে এক যুবককে আটক করে। এতে ঘটনায় ক্ষিপ্ত হয়ে সোমেশ্বরী নদীর বালিজুরী ব্রিজের উপর রেহালের লোকজন টহলরত বিজিবি সদস্যদের ওপর অতর্কিতে হামলা করে চার বিজিবি সদস্যকে আহত করে। এ সময় হামলাকারীরা বিজিবি সদস্যদের কাছ থেকে আটক রেহাল মিয়াকে ছিনিয়ে নেয় এবং বিজিবি সদস্যদের হাতে থাকা ‌একটি চাইনিজ রাইফেলের বাট ভেঙে ফেলে। খবর পেয়ে তাওয়াকুচা বিজিবি ক্যাম্প থেকে বিজিবির অন্য সদস্যরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে রেহালের লোকজনের ওপর লাঠিচার্জ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ সময় বিজিবির লাঠিচার্জে নারীসহ ছয়জন আহত হন।

এদিকে, তাওয়াকুচা গ্রামের মহসিন আলী অভিযোগ করে বলেন, সোমেশ্বরী নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনকে কেন্দ্র করে গ্রামবাসীর সঙ্গে বিজিবি সদস্যদের সংঘর্ষ হয়। এ সময় বিজিবি সদস্যদের লাঠিচার্জে চার নারীসহ গ্রামের ছয় বাসিন্দা গুরুতর আহত হন। আহতদের মধ্যে লালভানু, গোলাপী বেগম, রাবিয়া খাতুন, মাজেদা খাতুন এবং  রফিকুল ইসলামকে ঝিনাইগাতী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

এ ব্যাপারে ঝিনাইগাতী থানার ওসি মিজানুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, "বিজিবির ওপর হামলার ঘটনায় সরকারি কর্তব্যকাজে বাধা ও আসামি  ছিনতাইয়ের অভিযোগে হাবিলদার ইলিয়াস আলী বাদী হয়ে ৩০ জনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেছেন। ঘটনাটির তদন্ত চলছে। তবে এ ঘটনায় কাউকে আটক করা যায়নি। "  

 


মন্তব্য