kalerkantho


মাদারীপুরে যৌতুক না পেয়ে গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগ

মাদারীপুর প্রতিনিধি   

২ এপ্রিল, ২০১৬ ২০:৫৪



মাদারীপুরে যৌতুক না পেয়ে গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগ

মাদারীপুর শহরের কুলপদ্বি এলাকায় রিমা আক্তার (১৯) নামে এক গৃহবধূকে যৌতুকের টাকার জন্য হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। জানা গেছে, আজ শনিবার সকালে ওই গৃহবধূর লাশটি সদর হাসপাতালের বারান্দায় ফেলে রেখে পালিয়ে যায় স্বামী সোহান হোসেন বাবুসহ শশুরবাড়ির লোকজন।

পারিবার, হাসপাতাল ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, বছর খানেক আগে মাদারীপুর সদর উপজেলার ব্রাক্ষদী গ্রামের মান্নান হাওলাদারের মেয়ে রিমা আক্তারের সাথে একই উপজেলার ছিলারচর ইউনিয়নের রগুরামপুর গ্রামের জব্বার আকনের ছেলে সোহান হোসেন বাবুর বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই সোহানের পরিবার যৌতুকের জন্য চাপ দিতে থাকে। বিয়ের সময় এক লাখ টাকা যৌতুক দেওয়া হয়। পরে আবারও এক লাখ টাকা যৌতুক দাবি করে রিমাকে শারীরিক ও মানসিকভাবে নির্যাতন করতে থাকে। এরই জের ধরে গতকাল শুক্রবার রাতে সোহান বালিশ চাপা দিয়ে রিমাকে হত্যা করেছে বলে পারিবারিকভাবে অভিযোগ পাওয়া গেছে। পরে রিমার লাশটি হাসপাতালের বারান্দার ট্রলির উপর রেখে পালিয়ে যায় স্বামী সোহানসহ শশুরবাড়ির লোকজন। পরবর্তীতে পুলিশ এসে লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মাদারীপুর মর্গে পাঠায়।

নিহতের বোন আকলিমা বেগম বলেন, আমার বোনকে যৌতুকের জন্য বালিশ চাপা দিয়ে হত্যা করে ওরা পালিয়েছে। ওরা শুধু টাকা চায়, এই নিয়ে অনেকবার সালিশ হয়েছে। আমি এর বিচার চাই।

এ ব্যাপারে মাদারীপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. জিয়াউল মোর্শেদ জানান, এ ঘটনার পর থেকে নিহতের স্বামী পলাতক রয়েছে। দোষিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।
 

 

 


মন্তব্য