kalerkantho

সোমবার। ২৩ জানুয়ারি ২০১৭ । ১০ মাঘ ১৪২৩। ২৪ রবিউস সানি ১৪৩৮।


নড়িয়ায় এক রাতে তিন বাড়িতে ডাকাতি, আহত ২

শরীয়তপুর প্রতিনিধি    

১ এপ্রিল, ২০১৬ ১৮:৪৭



নড়িয়ায় এক রাতে তিন বাড়িতে ডাকাতি, আহত ২

শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলার মোক্তাকারেরচর ইউনিয়নে গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে তিন বাড়িতে ডাকাতি হয়েছে। অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে তিন বাড়ি থেকে লক্ষাধিক টাকা ও প্রায় পাঁচ ভরি স্বর্ণালংকার লুট করে নিয়ে যায় ডাকাতদল।

এ সময় ডাকাতির কাজে বাধা দিতে গেলে ধারালো অস্ত্র দিয়ে দুইজনকে কুপিয়ে আহত করা হয়। আহতদের চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। তবে এ ঘটনাকে চুরির ঘটনা বলে দাবি করেছে পুলিশ।

নড়িয়া থানা পুলিশ ও ডাকাতির শিকার পরিবারগুলোর সদস্যরা জানান, গতরাত ২টার দিকে প্রথমে মোক্তাকারের চর ইউনিয়নের ঈশরকাঠি গ্রামের মীর হোসেন মাদবরের ঘরের টিন কেটে দরজা খুলে ঘরে প্রবেশ করে একদল ডাকাত। পরে পরিবারের সদস্যদের অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে হাত পা-বেঁধে স্বর্ণালংকার ও টাকা লুট করে তারা। একইভাবে রাত ৩টার দিকে একই গ্রামের আনোয়ার বেপারীর বারিতে প্রবেশ করে  ডাকাতদলটি। সেখানে ডাকাতির কাজে বাধা দিলে আনোয়ার বেপারী (৫০) ও তার ছেলে সেলিম বেপারীকে (২৫) কুপিয়ে আহত করা হয়।

এ ছাড়া ভোররাতে পাশের গ্রামের মাওলানা জাকির হোসেন মাদবরের ঘরে ঢুকে মাথায় আগ্নেআস্ত্র ঠেকিয়ে একদল চোর ২৫ হাজার টাকা ও স্বর্ণালংকার লুট করে নিয়ে যায়। খবর পেয়ে আজ শুক্রবার সকালে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে পুলিশ। আহত দুইজনকে প্রথমে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে নিয়ে আসা হলে অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাদেরকে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় পুরো এলাকাজুড়ে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে।

মাওলানা জাকির হোসেন মাদবর বলেন, "ভোর সাড়ে ৪টার দিকে সিঁধ কেটে ৫-৭ জন লোক অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে ঘরে ঢুকে আমার মাথায় একটি আগ্নেয়আস্ত্র ঠেকিয়ে দেয়। পরে ঘরে থাকা ২৫ হাজর টাকা ও প্রায় তিন ভরি স্বর্ণ ও সাতটি মোবাইল ফোনসেট নিয়ে যায়। সকালে শুনতে পারি আরো দুই বাড়িতে এ ঘটনা ঘটেছে। "

নড়িয়া থানার ওসি ইকরাম আলী মিয়া বলেন, "তিনটি বাড়ি থেকে কিছু মালামাল নিয়েছে। পুলিশ বাড়িগুলো পরিদর্শন করেছে। আনোয়ার বেপারীর বাড়ি থেকে ফেলে যাওয়া একটি ছুরি, একটি জুতা ও একটি ছাতা উদ্ধার করা হয়েছে। আলামত দেখে মনে হয়েছে এটি একটি চুরির ঘটনা। চোরদের আঘাতে দুইজন আহত হয়েছে। "

 


মন্তব্য