kalerkantho

26th march banner

ইউনিয়ন নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতা

মাদারীপুরে আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষে আহত ১৫

মাদারীপুর প্রতিনিধি    

১ এপ্রিল, ২০১৬ ১৬:৪৯



মাদারীপুরে আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষে আহত ১৫

নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় মাদারীপুর সদর উপজেলার কুনিয়া ইউনিয়নের দিয়াপাড়া গ্রামে আজ শুক্রবার সকালে আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষে সাতজন গুলিবিদ্ধসহ ১৫ জন আহত হয়েছে। আহতদের মাদারীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ছাড়া কয়েকজনকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

আহত, হাসপাতাল, স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, মাদারীপুর সদর উপজেলার কুনিয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী সানোয়ার হোসেন এবং আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী সাহেব আলী নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেন। নির্বাচনে আওয়ামী লীগের অপর বিদ্রোহী প্রার্থী অমিত হাসান কবিরের কাছে ওই দুজনই পরাজিত হয়। এ নিয়ে নির্বাচনের পর গতকাল বৃহস্পতিবার রাত থেকে দুই পক্ষের সমর্থকদের মধ্যে ক্ষোভ ও উত্তেজনা দেখা দেয়।

এ নিয়ে আজ শুক্রবার সকালে উভয় পক্ষের সমর্থকদের মধ্যে কথাকাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী সাহেব আলীর সমর্থকরা আওয়ামী লীগের প্রার্থী সানোয়ার হোসেনের সমর্থক বেলায়েত হোসেনের বাড়িতে হামলা ও অগ্নিসংযোগ করে। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। একপর্যায়ে দুই পক্ষের মধ্যে গুলিবর্ষণের ঘটনা ঘটে। এতে রফিক হাওলাদার (২৬), কালাম (৩৫), হাসান (৩০), আলহাজ (২৬), রুবেল (২৩), নাইম (২৭), সালাম (৩৫) গুলিবিদ্ধ হন। সংঘর্ষে উভয় পক্ষের আরো আটজন।

খরব পেয়ে বিজিবি, র‍্যাব ও পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ ঘটনায় আহতদের মাদারীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এদের মধ্যে গুলিবিদ্ধ রফিক, কালাম ও হাসানের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাদেরকে ঢাকা মেডিক‍্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। মাদারীপুর পুলিশ সুপার মোহাম্মদ সরোয়ার হোসেন বলেন, "ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। পরে বিস্তারিত জানানো যাবে। "

 


মন্তব্য