kalerkantho


বরগুনার তালতলীতে কোস্টগার্ডের নির্যাতন

নিখোঁজ আসমা বেগম আত্মগোপনে!

বরগুনা প্রতিনিধি   

৩১ মার্চ, ২০১৬ ২১:১৬



নিখোঁজ আসমা বেগম আত্মগোপনে!

বরগুনার তালতলী উপজেলার বুড়িশ্বর নদীতে রেনু পোনা শিকারের সময় কোস্টগার্ড সদস্যদের নির্যাতনের শিকার হয়ে নিখোঁজ থাকা সেই আসমা বেগম (২৭) এখন কোথায় আছেন তা জানা যায়নি। গত বুধবার সকালে রেণু পোনা শিকারের সময় কোস্টগার্ডের বেধড়ক পিটুনিতে কদবানু (৪৫) এবং জোবেদা বেগমসহ (৩৫) একাধিক নারী ও শিশু আহত হয়।

ঘটনার সময় আহত জোবেদা বেগমের বোনের মেয়ে আসমা বেগমকে (২৭) কোস্টগার্ডের ট্রলারে উঠিয়ে নেয়া হয়েছে বলে অভিযোগ ওঠে। যদিও এ অভিযোগ সরাসরি অস্বীকার করেন কোস্টগার্ড ফকিরহাট ক্যাম্পের স্টেশন কমান্ডার শামীম আহমেদ।

কোস্টগার্ডের পিটুনিতে আহত কদবানু (৪৫) এবং জোবেদা বেগম (৩৫) বর্তমানে বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। নিখোঁজ আসমা বেগমের খালা জোবেদা বেগমের সাথে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় কথা বললে তিনি জানান, আসমা বেগম কোথায় আছে কেমন আছে তা তিনি এখনও জানেন না। তার সাথে আসমা বেগম কোনও যোগাযোগ করেনি।

অন্যদিকে স্থানীয় গ্রাম পুলিশ সেলিম চৌকিদার এবং স্থানীয় ইউপি সদস্য সেলিম মেম্বার জানান, ঘটনার দিন কোস্টগার্ডের ট্রলার থেকে লাফিয়ে নদীতে পড়ে যান আসমা বেগম। পরে কোস্টগার্ড এবং লোকলজ্জার ভয়ে গোপনে বাড়ি যান এবং সেখান থেকে তিনি চট্টগ্রাম চলে যান। তিনি আরও জানান, আসমা বেগম চট্টগ্রামে থাকেন। সেখানে তিনি শ্রমিকের কাজ করেন।

পোনা শিকারের মৌসুমে কিছুদিন তিনি তালতলী তার খালা জোবেদা বেগমের  বাড়ি এসে থাকেন।


মন্তব্য