kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৪ জানুয়ারি ২০১৭ । ১১ মাঘ ১৪২৩। ২৫ রবিউস সানি ১৪৩৮।


রাজশাহীতে পিঠা চুরির অপরাধে গৃহকর্মীকে পিটিয়ে আহত

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী   

৩০ মার্চ, ২০১৬ ২২:৪৬



রাজশাহীতে পিঠা চুরির অপরাধে গৃহকর্মীকে পিটিয়ে আহত

রাজশাহীতে পিঠা চুরি করে খাওয়ার অপরাধে ববিতা খাতুনকে (১১) নামে এক গৃহকর্মীকে পিটিয়ে আহত করা হয়েছে। আজ বুধবার বিকেলে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় পুলিশ গৃহকর্তৃকে গ্রেপ্তার করেছে। ভিকটিম ববিতাকে উদ্ধার করে নগরীর শাহ মখদুম থানার ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টারে রাখা হয়েছে। সে নওগাঁ সদর উপজেলার সুলতানপুর এলাকার ফকিম উদ্দীনের মেয়ে।

পুলিশ জানায়, গত চার মাস আগে দুমুঠো পেটের ভাত আর পরণের কাপড়ের জন্য ববিতা খাতুনকে তার বাবা ফকিম উদ্দিন রাজশাহী নগরীর বালিয়াপুকুর মহল্লার সরকারি চাকরিজীবী মাসুম আলীর বাড়িতে রেখে যান। এর পর থেকে তার বাড়ির কাজ করে আসছিল ববিতা। কিন্তু কারণে-অকারণে ববিতার ওপর নানাভাবে অত্যাচার, নির্যাতন চালিয়ে আসছিল মাসুমের স্ত্রী কাঁকন বেগম। এরই মধ্যে আজ বুধবার বিকেলে ববিতা পিঠা চুরি করে খেয়েছে সেই অপবাদ দিয়ে তাকে বেদম মারধর করে কাঁকন। এতে গুরুতর আহত হয় সে। পরে ববিতা মোবাইল ফোনে তার বাবাকে জানায়। এরপরে বাবা ফকিম উদ্দিন ছুটে এসে বিষয়টি নগরীর বোয়ালিয়া থানা পুলিশকে জানান।

নগরীর বোয়ালিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) নজরুল ইসলাম জানান, মেয়েটির বাবার নিকট থেকে মৌখিক অভিযোগ পাওয়ার পরে ওই বাড়িতে পুলিশ অভিযান চালিয়ে তাকে উদ্ধার করে। এ সময় বাড়ি মালিকের স্ত্রী কাঁকনকেও গ্রেপ্তার করা হয়। পরে মেয়েটিকে নগরীর শাহমখদুম থানার ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টারে রাখা হয়।

এ ব্যাপারে বোয়ালিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহাদাত হোসেন জানান, এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। ওই মামলায় গৃহকর্তৃকে গ্রেপ্তার দেখানো হবে।

এদিকে পুলিশের একাধিক সূত্র নিশ্চিত করেছে, গহকর্তৃ কাঁকনের স্বামী মাসুম সরকারি কর্মকর্তা হওয়ায় পুলিশ বিষয়টি নিয়ে শুরু থেকেই ব্যাপক গোপনীয়তার আশ্রয় নেয়। তবে বিষয়টি নিয়ে সংবাদকর্মীরা খোঁজ-খবর নিতে থাকলে কিছুটা তথ্য দিতে শুরু করে পুলিশ।


মন্তব্য