kalerkantho


চিংড়ি পোনা আহরণকালে নারীকে তুলে নেয়ার অভিযোগ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৩০ মার্চ, ২০১৬ ১৫:৫৬



চিংড়ি পোনা আহরণকালে নারীকে তুলে নেয়ার অভিযোগ

বঙ্গোপসাগরের মোহনায় পায়রা নদীতে রেনু পোনা আহরণ করতে গিয়ে কোস্টগার্ড সদস্যদের নির্যাতনে তিন নারীসহ চারজন আহত হয়েছে। এছাড়া আসমা বেগম নামে আরেক নারী তুলে নিয়ে যাওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। আহতরা হলেন-কদভানু, জবেদা বেগম, ফুলভানু ও রাসেল। নিখোঁজ আসমার পরিবারের দাবি, কোস্টগার্ড সদস্যরা তাদের ট্রলারে তাকে উঠিয়ে নিয়ে গেছে। তবে কোস্টগার্ড সদস্যরা উঠিয়ে নিয়ে যাবার বিষয়টি অস্বীকার করেছে।
 
কোস্টগার্ড ফকিরহাট ক্যাম্পের স্টেশন কমান্ডার শামীম জানান, তারা অবৈধ কারেন্ট জাল উদ্ধার করতে গেলে নারী ও শিশুরা তাদের আক্রমণ করে। এ সময় তারা আত্মরক্ষার্থে লাঠি ও বাঁশ দিয়ে পিটিয়ে নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা করেছেন। তিনি আরো জানান, জবেদা বেগম জাল ফেরত নেয়ার জন্য তাদের ট্রলারে উঠে গিয়েছিলেন। পরে তাকে নিদ্রার চরে নামিয়ে দেয়া হয়েছে। তবে আসমা বেগমকে তাদের ট্রলারে নিয়ে যাবার কথা অস্বীকার করছেন।
 
নিশানবাড়িয়া ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের গ্রাম পুলিশ সদস্য সেলিম মিয়া জানান, তিনি নিজের চোখে দুই নারীকে কোস্টগার্ডের ট্রলারে উঠিয়ে নিতে দেখেছেন। তালতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বাবুল আক্তার জানান, থানায় যাবার পরে ঐ দুইনারীকে চিকিত্সার জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তবে এখন পর্যন্ত এ ব্যাপারে থানায় কোন মামলা হয়নি।

 


মন্তব্য