kalerkantho


পাথরঘাটায় মুক্তিযোদ্ধা ভবনের সামনে ডাস্টবিন নির্মাণ, প্রতিবাদ সভা-বিক্ষোভ

পাথরঘাটা (বরগুনা) প্রতিনিধি   

২৮ মার্চ, ২০১৬ ২১:০৯



পাথরঘাটায় মুক্তিযোদ্ধা ভবনের সামনে ডাস্টবিন নির্মাণ, প্রতিবাদ সভা-বিক্ষোভ

বরগুনার পাথরঘাটায় মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সে ভবনের সামনে পৌর সভার আবর্জনা ফেলার ভাগাড় নির্মাণের প্রতিবাদে সভা ও বিক্ষোভ মিছিল করেছে মুক্তিযোদ্ধারা। এ ঘটনায় তাঁরা পৌর কাউন্সিলর ও মেয়রের বিচার দাবি করেন এবং উপজেলা নিবার্হী অফিসারের নিকট এ সংক্রান্ত একটি স্মারক লিপি প্রদান করেন।

আজ সোমবার বেলা ১১টায় পাথরঘাটা পৌর শহরের শেখ রাসেল স্কয়ারে অনুষ্ঠিত প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য রাখেন উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার আব্দুল মান্নান হাওলাদার, ডেপুটি কমান্ডার এম.এ খালেক, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাড. মো. জাবির হোসেন সাবেক কাউন্সিলর মোশারফ হোসেন সোহরাব। প্রতিবাদ সভা শেষে বিক্ষোভ মিছিল করে মুক্তিযোদ্ধারা। পরে তাঁরা উপজেলা পরিষদে গিয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নিকট স্মারকলিপি প্রদান করে।
 
স্মারকলিপিতে উল্লেখ করা হয়, পাথরঘাটা পৌর শহরের পূর্ব বাজারে প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ বিবেচনায় জমি বরাদ্ধ দেওয়া হয়। সেখানে উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সের ভবন নির্মাণ চলছে। ওই ভবনের সামনে পাথরঘাটা পৌরসভা ১ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও উপজেলা জামাতের সদস্য মাহবুবুর রহমান খান আবর্জনা ফেলার জন্য ভাগাড়(ডাস্টবিন) নির্মাণ শুরু করে।

এ বিষয়ে মুক্তিযোদ্ধারা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, মুক্তিযোদ্ধারা দেশের সূর্য সন্তান। জামায়াত নেতার এই চেষ্টা যেমন মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সের অবমাননা করেছে, তেমনি মুক্তিযোদ্ধাদেরও অবমাননা করা হয়েছে।

পাথরঘাটা পৌরসভার আবর্জনা অপসারণ ও হস্তান্তর সংক্রান্ত কমিটির সদস্য ও সংরক্ষিত আসসেনর কাউন্সিলির মুনিরা ইয়ামিন খুসি ও অপর সদস্য কাউন্সিলর মোফাচ্ছের হোসেন বাবুল জানান, কমিটির কোন সিদ্ধান্ত ছাড়াই মাহবুব খান এমন অবিবেচক কাজ শুরু করেছে।

এদিকে পাথরঘাটা পৌরসভার আবর্জনা অপসারণ ও হস্তান্তর সংক্রান্ত কমিটির সভাপতি ও ১নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মাহবুবুর রহমান খান বলেন, ভাগাড় (ডাস্টবিন) তৈরি করা হয়েছিল জনস্বার্থে। কিন্তু মুক্তিযোদ্ধারা প্রতিবাদ করা মাত্রই তা সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।

এ ব্যাপারে পাথরঘাটা পৌর মেয়র ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি মো.আনোয়ার হোসেন আকন সাংবাদিকদের বলেন, পূর্ব বাজারে ডাস্টবিন স্থাপনের বিষয়টি আমি জানি। তবে মুক্তিযোদ্ধারা যে জায়গা নিয়ে প্রতিবাদ করছে সেটি আমার জানা নেই।


মন্তব্য