kalerkantho


ইউপি নির্বাচন

টেকনাফে ব্যালট বাক্স ছিনতাইয়ের চেষ্টা, সংঘর্ষে আহত ৫

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৭ মার্চ, ২০১৬ ২৩:৫১



টেকনাফে ব্যালট বাক্স ছিনতাইয়ের চেষ্টা, সংঘর্ষে আহত ৫

কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলার ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে ব্যালট বাক্স ছিনতাইয়ের চেষ্টাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ, ভাঙচুর ও ধাওয়া-পাল্টাধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এতে কমপক্ষে পাঁচজন আহত হয়েছে। আজ রবিবার দুপুর ১২টায় উপজেলার হোয়াইক্যং ইউপিতে নির্বাচন চলাকালে এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, আজ দুপুরে হোয়াইক্যং ইউনিয়নের উনছিপ্রাং সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী ফরিদুল আলম জুয়েল দলবলসহ কেন্দ্রে ঢুকে নৌকা প্রতীকে ব্যালটে সিল মারা শুরু করলে ভোটাররা প্রতিবাদ করে। খবরটি তাৎক্ষণিকভাবে ছড়িয়ে পড়লে হাজার হাজার ভোটার কেন্দ্র ঘেরাও করে জুয়েলকে অবরুদ্ধ করে রাখে। তিন ঘণ্টা অবরুদ্ধ থাকার পর সাংবাদিকদের সহযোগিতায় এবং অতিরিক্ত পুলিশ ও বিজিবির পাহারায় তিনি ঘটনাস্থল ত্যাগ করতে সক্ষম হন।

অবরুদ্ধের সময় কক্সবাজার-টেকনাফ মহাসড়কে ব্যারিকেড দিয়ে বিক্ষোভ করে এলাকাবাসী। এ সময় পুলিশ ও দুই প্রার্থীর সমর্থকদের সঙ্গে এলাকাবাসীর সংঘর্ষ হয়। সংঘর্ষ চলাকালে ফরিদুল আলম জুয়েলের গাড়ি ভাঙচুর করা হয়। এ সময় হামলায় আহত হয় চালক হারুনসহ চারজন। এ ছাড়াও দুপুর ১টায় ব্যালট বাক্স ছিনতাই চেষ্টার অভিযোগে এক ব্যক্তিকে ধরে পিটুনি দেয় স্থানীয় লোকজন। পরে পুলিশ তাকে উদ্ধার করে নিয়ে যায়।

স্বতন্ত্র প্রার্থী নূর আহমদ আনোয়ারী অভিযোগ করেন, সকাল থেকে সুষ্ঠুভাবে ভোট শুরু হলেও ১০টার পর থেকে চারটি কেন্দ্রে নৌকা প্রতীকের লোকজন কেন্দ্রে ব্যাপক হাঙ্গামা শুরু করে। বিএনপি ও স্বতন্ত্র প্রার্থীর এজেন্টদের বের করে দেয়।

হোয়াইক্যং ইউপির চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী জুনায়েদ আলী অভিযোগ করেন, দুর্বৃত্তরা ভোট ছিনিয়ে নেওয়ার জন্য বিভিন্নভাবে হুমকি দিচ্ছে। আওয়ামী লীগের সমর্থকরা গতকাল রাত থেকে ভোটারদের ঘরে ঘরে গিয়ে ভোটকেন্দ্রে না যাওয়ার হুমকি দিচ্ছে। সকাল থেকে কেন্দ্রে কেন্দ্রে বিরোধী দল সমর্থক প্রার্থীর এজেন্টদের বের করে দেওয়া হচ্ছে।

হোয়াইক্যং মডেল ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে তিনজন, সংরক্ষিত তিনটি মহিলা আসনে ১৮ জন, নয়টি সাধারণ ওয়ার্ডে ৬৬ জনসহ মোট ৮৭ জন প্রার্থী রয়েছেন। এই ইউনিয়নে ভোটার সংখ্যা ২৮ হাজার ৩৪ জন। পুরুষ ভোটার ১৪ হাজার ৩২১ জন এবং নারী ভোটার ১৩ হাজার ৭১৩ জন। এ ইউনিয়নে ভোটকেন্দ্র রয়েছে ১৯টি।

উল্লেখ্য, গত ২২ মার্চ এই দুই ইউনিয়নে নির্বাচনের দিন ধার্য থাকলেও মামলার কারণে ২৭ মার্চ পুনরায় দিন নির্ধারণ করে নির্বাচন কমিশন।


মন্তব্য