kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৭ জানুয়ারি ২০১৭ । ৪ মাঘ ১৪২৩। ১৮ রবিউস সানি ১৪৩৮।


কলাপাড়ায় শিশু তাসিন হত্যার বিচারের দাবিতে শিক্ষকদের মানববন্ধন

কলাপাড়া প্রতিবেদক   

২৭ মার্চ, ২০১৬ ২২:৩১



কলাপাড়ায় শিশু তাসিন হত্যার বিচারের দাবিতে শিক্ষকদের মানববন্ধন

সাড়ে চার বছরের শিশু গাজী তাসিন হত্যাকারিদের বিচারের দাবিতে মানববন্ধন করেছে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা। আজ রবিবার দুপুরে পটুয়াখালীর কলাপাড়া প্রেসক্লাব চত্বরে উপজেলার বিভিন্ন প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষিকাদের অংশগ্রহণে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন খেপুপাড়া মংগলসুখ সরকারি মডেল প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবুল কাশেম। এ সময় বক্তব্য রাখেন তাসিনের পিতা তাসিনের পিতা গাজী মজিবর রহমান। তিনি বলেন, আমার একমাত্র সন্তানকে হত্যা করা হয়েছে এটা স্পষ্ট। কিন্তু এখন পর্যন্ত আমি হত্যার মূল রহস্য উদঘাটনে এবং আসামিদের গ্রেপ্তারে পুলিশের সহযোগিতা পাচ্ছি না।

মানববন্ধনে আরো বক্তব্য রাখেন মুক্তিযোদ্ধা হাবিবুল্লাহ রানা, আমীরাবাদ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শাহ সুজা, সহকারি শিক্ষিকা সায়লা পারভীন। বক্তারা বলেন, প্রায় দুই মাস অতিবাহিত হয়ে গেলেও তাসিন হত্যার মূল রহস্য উদঘাটন করতে পারেনি পুলিশ। ঘটনার পর হত্যার সাথে জড়িত সন্দেহে তাসিনের চাচি লাভলী বেগমকে গ্রেপ্তার করে দুই দফা রিমান্ডে নিয়েও হত্যার মূল রহস্য উদঘাটন করতে পারেনি। এমনকি পুলিশের সহযোগিতাও পাচ্ছে না তাসিনের পরিবার। একই সাথে অন্যান্য হত্যাকারীরা রয়েছে ধরা ছোয়ার বাইরে। কলাপাড়া থানা পুলিশ মামলাটি পরিচালনায় ব্যর্থ হয়েছে। মামলাটি সিআইডি পুলিশে হস্তান্তরের দাবি তোলেন তারা।

এ ব্যাপারে কলাপাড়া থানার ওসি জি এম শাহনেওয়াজ জানান, তাসিন হত্যার সাথে জড়িত সন্দেহে নিকটাত্মীয় একজনকে ইতিমধ্যে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। নিহত শিশুটির লাশের ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পাওয়া গেছে। হত্যার মূল রহস্য উদঘাটনসহ আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ০৯ ফেব্রুয়ারী মঙ্গলবার পটুয়াখালীর কলাপাড়া পৌর শহরের রহমতপুর এলাকার বাসা থেকে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে গাজী তাসিন নিখোঁজ হয়। এরপরে রাত সাড়ে ১০টার দিকে প্রতিবেশীর পুকুর পাড় থেকে শিশুটির লাশ উদ্ধার করা হয়। উদ্ধারের সময় শিশুটির নাক-মুখ থেকে রক্ত ঝড়ছিল। পরদিন সন্ধ্যায় তাসিনের পিতা গাজী মজিবর রহমান বাদী হয়ে অজ্ঞাতদের বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। এর পর বৃহস্পতিবার দুপুর দেড়টার দিকে কলাপাড়া পৌর শহরের রহমতপুর বাসা থেকে তাসিন হত্যার সাথে জড়িত সন্দেহে তাসিনের চাচি লাভলী বেগমকে পুলিশ গ্রেপ্তার করে দুই দফা রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করে। গ্রেফতার হওয়া লাভলী বেগম তাসিনের পিতা গাজী মজিবুর রহমানের মেঝ ভাই গাজী মো. হাবিবুর রহমানের স্ত্রী।

 


মন্তব্য