kalerkantho


চাঁদাবাজির অভিযোগে ঝিনাইগাতীতে দুই যুবক গ্রেপ্তার

শেপুর প্রতিনিধি    

২৫ মার্চ, ২০১৬ ১৮:৪২



চাঁদাবাজির অভিযোগে ঝিনাইগাতীতে দুই যুবক গ্রেপ্তার

শেরপুরের ঝিনাইগাতীতে তিন ব্যবসায়ীর নিকট মোবাইল ফোনে চাঁদা দাবি করে প্রাণনাশ ও শিশু অপহরণের হুমকি দেওয়ার অভিযোগে দুই যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন ঝিনাইগাতীর প্রতাবনগর গ্রামের তোতা মণ্ডলের ছেলে আরিফ আহমেদ শাওন (১৯) এবং নয়ানগর গ্রামের আবু বকরের ছেলে আলম মিয়া (২০)।

গ্রেপ্তারকৃতদের আজ শুক্রবার দুপুরে বিচারিক হাকিমের আদালতে সোপর্দ করা হলে আরিফ আহমেদ শাওন সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আ ন ম ইলিয়াছের নিকট ফৌজদারি কার্যবিধির ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দি দেয়। অপর আসামি আলম মিয়াকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ সাত দিনের রিমান্ড আবেদন জানিয়েছে।    

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত ৯ মার্চ ঝিনাইগাতীর নয়াগাঁও এলাকার মৎস্য খামারি ফরহাদ হোসেনের মোবাইল ফোনে ৩০ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে তাকে প্রাণনাশের হুমকি ও শিশু অপহরণের হুমকি দেওয়া হয়। একপর্যায়ে ওই ব্যবসায়ী ফোনকলটি রেকর্ড করে রাখেন। ঘটনার বিস্তারিত জানিয়ে ঝিনাইগাতী থানায় তিনি একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। এ ঘটনার পর ১২ মার্চ ঝিনাইগাতী কলেজ রোডের ব্যবসায়ী হাসেন আলীর নিকট ১০ লাখ টাকা এবং মজনু মিয়ার নিকট দুই লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে তাদের মোবাইলেও কল আসে। বিষয়টি তারা পুলিশকে অবহিত করেন। পরে পুলিশ মোবাইল ফোন ট্র্যাকিংয়ের মাধ্যমে নম্বরগুলো শনাক্ত করে আরিফ আহমেদ শাওন ও আলম মিয়াকে গ্রেপ্তোর করে। এ ঘটনায় ব্যবসায়ী ফরহাদ হোসেন বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেছেন।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও ঝিনাইগাতী থানার ‌এসআই শফিকুল ইসলাম শফিক বলেন, ব্যবসায়ীর মোবাইল ফোনে চাঁদা দাবি করে প্রাণনাশের হুমকির অভিযোগে দুইজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গ্রেপ্তারকৃতদের মধ্যে আসামি আরিফ আহমেদ শাওন আদালতে স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দি দিয়েছে। আরেক আসামি আলম মিয়াকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সাত দিনের রিমান্ড আবেদন জানানো হয়েছে।

 


মন্তব্য