kalerkantho

রবিবার। ২২ জানুয়ারি ২০১৭ । ৯ মাঘ ১৪২৩। ২৩ রবিউস সানি ১৪৩৮।


আহত ৫

সিরাজগঞ্জে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীর ওপর হামলা হামলা

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি    

২৫ মার্চ, ২০১৬ ১৬:৪৯



সিরাজগঞ্জে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীর ওপর হামলা হামলা

সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার বহুলী ইউনিয়নে যুবলীগ ও স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতাকর্মীদের হামলায় আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী চেয়ারম্যান প্রার্থীসহ অন্তত পাঁচজন আহত হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ সময় একটি ঘরের চেয়ার, আসবাবপত্র, একটি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করা হয়। ইউনিয়নের বাগডুমুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।    

বহুলী ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী আব্দুল বারী তালুকদার অভিযোগ করে বলেন, "বাগডুমুর এলাকার মাসুদ মাস্টারের বাড়িতে স্থানীয় শিক্ষক, গণ্যমান্য ব্যক্তিদের নিয়ে সভা করার সময় জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি নুরুল ইসলাম ও পৌর যুবলীগের আহ্বায়ক এমদাদুল হক এমদাদের নেতৃত্বে ২০-২৫ জনের একটি দল মোটরসাইকেলে করে এসে হামলা চালায়। এ সময় তারা আমাকে এবং ভাতিজা হিরা, সমর্থক রানা ও ইমরানকে মারপিট করে। এ ছাড়া  ঘরের আসবাবপত্র, চেয়ার, একটি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করে। তারা  আমার ব্যবহৃত মোবাইল ফোনও ছিনিয়ে নেয়। নির্বাচন থেকে সরে না দাঁড়ালে পরে আমার গ্রামের ও শহরের বাড়িতেও হামলা চালানো হবে বলে হুমকি দেয় তারা। "
 
এ ব্যাপারে জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি নুরুল ইসলাম সজল বলেন, "দলের সিদ্বান্ত অমান্য করে নির্বাচনে অংশ নেওয়ায় বৃহস্পতিবার রাতে সদ্য পাশ হওয়া জেলা আওয়ামী লীগের প্রথম সভার সিদ্বান্তে  জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য আব্দুল বারী তালুকদারকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়। আজ শুক্রবার দুপুরে বহুলী এলাকায় বহিষ্কারের বিষয়টি মাইকযোগে প্রচারের সময় তার সমর্থকরা মাইক ভাঙচুর করে এবং ২০-২৫টি মোটরসাইকেলযোগে ওই এলাকা দিয়ে যাবার সময় বারী তালুকদারের নেতৃত্ব রাস্তায় প্রতিবন্ধকতা তৈরি করে জেলা নেতাদের নামে গালমন্দ করা হচ্ছিল। সে সময় বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা মারপিট ও কিছু বিচ্ছিন্ন ঘটনা ঘটিয়েছে। "

পৌর যুবলীগের আহ্বাক এমদাদুল হক এমদাদ বলেন, "কোনো হামলা বা মারপিটের ঘটনা ঘটেনি। উপরন্তু বারী তালুকদারের লোকজন মাইক ভাঙচুর এবং দলের প্রার্থী হায়দার আলীর পোস্টার ছিড়েছে। " খবর পেয়ে সদর থানার ওসি হাবিবুল ইসলাম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে বলেন, "ঘটনাটি দলের অভ্যন্তরীণ। আমরা নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করছি। বিষয়টি স্থানীয় সংসদ সদস্য প্রফেসর হাবিবে মিল্লাত মুন্না ও স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিমকে অবগত করা হয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। "   

 


মন্তব্য