kalerkantho

বুধবার । ২৫ জানুয়ারি ২০১৭ । ১২ মাঘ ১৪২৩। ২৬ রবিউস সানি ১৪৩৮।


কাহারোলে নির্বাচনী সহিংসতায় তিনজন আহত

দিনাজপুর প্রতিনিধি   

২৫ মার্চ, ২০১৬ ১৪:১৬



কাহারোলে নির্বাচনী সহিংসতায় তিনজন আহত

দিনাজপুরের কাহারোল উপজেলার রামচন্দ্র ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী আতাউর রহমান বাবুলের সমর্থকদের সাথে একজন (আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী) স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে দলীয় প্রার্থী ছেলে রওনক রহমান, স্বেচ্ছাসেবক লীগের উপজেলা কমিটির সভাপতি আসিফ রেজা রুবেল এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী মুনিরাম রায়ের সমর্থক সুব্রত রায় আহত হয়েছে। এ সময় ভাঙচুর করা হয়েছে ৩টি নির্বাচনী প্রচার অফিস।

বৃহস্পতিবার রাত ১১টার দিকে ওই সংঘর্ষ ঘটেছে ইউনিয়নের শ্মশান ঘাট এলাকায়। এ ঘটনায় কোনো পক্ষ পুলিশে নালিশ জানাননি।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, কাহারোলের রামচন্দ্রপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ দলীয় প্রার্থী আতাউর রহমান বাবুল এবং একই দলের বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী মুনিরাম রায়ের সমর্থকরা গতকাল বৃহস্পতিবার রাত ১১টার দিকে উপজেলার শ্মশান ঘাট এলাকায় প্রচারণা চালানোর সময় পরস্পরকে কটূক্তি করে বক্তব্য দেয়। এ নিয়ে উভয় পক্ষের মধ্যে বাকবিতণ্ডার জেরে হাতাহাতি বেধে যায়। উভয় পক্ষের ওই তিনজন আহত হন। এদের মধ্যে আসিফ রেজা রুবেল ও রওনক রহমানকে কাহারোল উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে এবং সুব্রত রায়কে দিনাজপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ সময় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা ভেন্টাবাড়ী, মুটুনী এবং তেলেঙ্গী পাড়া এলাকায় স্বতন্ত্র প্রার্থীর আনারস প্রতীকের তিনটি নির্বাচনী অফিস ভাঙচুরসহ নির্বাচনী পোস্টার ছিঁড়ে ফেলে। খবর পেয়ে রাত ১২টায় পরিস্থিতি শান্ত করে কাহারোল থানা পুলিশ। আহতদের চিকিৎসার খোঁজ-খবর নেন ওই এলাকার দলীয় এমপি মনোরঞ্জনশীল গোপাল।

কাহারোল থানার পরিদর্শক মনসুর রহমান জানান, স্বতন্ত্র প্রার্থী মুনিরাম রায়কে গত নির্বাচনে সামান্য ভোটের ব্যবধানে পরাজিত করে নির্বাচিত হয়েছিলেন আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী আতাউর রহমান বাবুল। এ কারণে উভয় প্রার্থীর নেতাকর্মীদের মধ্যে বৈরিতা রয়েছে। সংঘর্ষের ঘটনায় আজ শুক্রবার দুপুর পর্যন্ত কোনো পক্ষ মামলা করেনি। কাউকে আটক করা হয়নি। তবে বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।

 


মন্তব্য