kalerkantho


চায়ের কাপে ভোটের ঝড়! কে হচ্ছেন ইউপি চেয়ারম্যান

বাগাতিপাড়া, (নাটোর)   

২৪ মার্চ, ২০১৬ ২১:৪৬



চায়ের কাপে ভোটের ঝড়! কে হচ্ছেন ইউপি চেয়ারম্যান

আগামী ৩১মার্চ বাগাতিপাড়া উপজেলার পাঁকা ইউনিয়ন নির্বাচনকে ঘিরে সরগরম হয়ে উঠেছে ইউনিয়ন জনপদ। চারি দিকে বিরাজ করছে সাজ সাজ রব। পোস্টারে পোষ্টারে ছেয়ে গেছে ইউনিয়ন এলাকা। দুপুর থেকে রাত পর্যন্ত মাইকিংয়ে অতিষ্ট হয়ে উঠেছেন ইউনিয়নবাসী। বিশেষ করে এই দলীয় প্রতীক নির্বাচনকে নিয়ে চায়ের কাপে উঠছে ভোটের ঝড়। এলাকার সর্বত্র একটাই আলোচনা কে হচ্ছেন পাঁকার ইউপি চেয়ারম্যান? এবার চেয়ারম্যান পদে ৫ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান নয়েজ মাহমুদ (নৌকা প্রতীক), বিএনপির মনোনিত প্রার্থী খোদেজা বেগম (ধানের শীষ প্রতীক), জাতীয় পার্টির মনোনিত প্রার্থী আকবর আলী (লাঙ্গল প্রতীক), আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী পার্থী (আনারস প্রতীক) বিএনপির বিদ্রোহী পার্থী (ঘোড়া প্রতীক) নিয়ে মাঠে নেমেছেন।
এবার দ্বিমূখী নির্বাচন হবে বলে ধারণা ভোটারদের। বাঙালি উৎসব প্রিয় জাতি। যেকোনো একটা উপলক্ষ পেলেই মেতে উঠি আনন্দ-উল্লাসে। সেই ভোটের উৎসব এখন শুরু হয়ে গেছে ইউনিয়ন এলাকার বিভিন্ন গ্রামের আনাচে কানাচে। চায়ের দোকানে চলছে আড্ডা, চলছে চুলচেরা বিশ্লেষণ। বাগবিতণদা যে চলছে না তাও নয়। এবার চেয়ারম্যান পদে লড়ছেন ৫জন, সংরক্ষিত মহিলা ইউপি সদস্যা পদে ১২ ও ইউপি সদস্য পদে ৩৬ জন।
আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান নয়েজ মাহমুদ এলাকার ব্যাপক উন্নতি করেছেন। নাটোর জেলায় বর্ষসেরা চেয়ারম্যান হিসেবে তিনি দুইবার সম্মাননা পান এছাড়াও সফল চেয়ারম্যান ও সমাজ সেবায় বিশেষ অবদানের স্বীকৃতি স্বরুপ  বেসরকারি বিভিন্ন সেচ্ছাসেবী প্রতাষ্ঠান হতে ৫টি সর্ণ পদক পান। আরো কিছু অসমাপ্ত কাজ সমাপ্ত হলে পাঁকা ইউনিয়ন একটি মডেল ইউনিয়নে রূপান্তরিত হবে বলে জানান।
ভোটারদের কাছে বিভিন্ন উন্নয়নের কথা বলে মন জয় করার চেষ্টা করছেন প্রার্থীরা। নির্বাচনী মাঠে কেউ কাউকে ছাড় দিতে নারাজ। প্রার্থীরা প্রতীক বরাদ্দের পরপরই প্রচারণায় নেমে পড়েছেন এবং ইউনিয়ন এলাকার উন্নয়নের বিভিন্ন প্রতিশ্রুতি দিয়ে ভোটারদের মন জয় করতে সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত গণসংযোগ, লিফলেট বিতরণ, উঠোন বৈঠক চালিয়ে যাচ্ছেন। ভোটারদের দিচ্ছেন ডজন ডজন প্রতিশ্রুতি।
এদিকে, আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান নয়েজ মাহমুদ ইউনিয়ন এলাকায় যে সমস্ত উন্নয়নের বিপ্লব ঘটিয়েছেন এবং বর্তমান সরকারের আমলে বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডের চিত্র তুলে ধরে ১নং পাঁকা ইউনিয়নকে একটি আধুনিক ইউনিয়ন গঠন করার লক্ষ্যে নৌকা প্রতীকে ভোট দিয়ে তাকে ফের নির্বাচিত করারজন্য ভোটারদের দ্বারে দ্বারে ধরনা দিচ্ছেন।  
খোদেজা বেগম উপজেলা বিএনপির সভানোত্রী এবার ইউপি নির্বাচনে তাকে বিএনপি থেকে মনোনীত করা হয়েছে। জাতীয় পার্টির মনোনীত প্রার্থী আকবর আলী জানান তার দলের দেয়া লাঙ্গল প্রতীকের কোনও বিদ্রোহী প্রার্থী নাথাকায় সে একক প্রার্থী, সেজন্য  শতভাগ জয় নিশ্চিত বলে তিনি আশাবাদী। অপর দিকে, আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে মাঠে অবস্থান নিয়ে রয়েছেন দুইবারের ইউপি চেয়ারম্যান আমজাদ হোসেন। বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়ায় উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতির পদ থেকে তাকে অব্যাহতি দিয়েছে দল। তিনি জানান তৃণমূলের ভোটাররা তাকে চায় সেহেতু তার জয় নিশ্চিত।
অপরদিকে বিএনপির বিদ্রোহী প্রার্থী নেকবর হোসেন বিগত দুইবার চেয়ারমান পদে নির্বাচন করে পরাজিত হন। তিনি মনে করেন ইউনিয়নে সর্বস্তরের মানুষের সুখে দুঃখে পাশে ছিলেন, এবার সঠিক মানুষটাকে বেছে নিবেন এবং তার জয় শতভাগ নিশ্চিত। অভিজ্ঞ মহল ও সাধারণ ভোটারদের সাথে আলাপ করে জানা যায় এবার মাঠে চেয়ারমান প্রার্থী ৫জন থাকলেও ভোট যুদ্ধে মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে ২ জনের। এবার দ্বিমুখী নির্বাচন হবে বলে মনে করছেন সাধারণ ভোটাররা।


মন্তব্য