kalerkantho


মাদক ব্যবসায়ীদের গ্রেপ্তারে আলটিমেটাম

সৈয়দপুরের মাদকের বিরুদ্ধে মুক্তিযোদ্ধা-জনতা সমাবেশ

সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধি   

২৪ মার্চ, ২০১৬ ২০:০১



সৈয়দপুরের মাদকের বিরুদ্ধে মুক্তিযোদ্ধা-জনতা সমাবেশ

মাদকের নীল ছোবল থেকে যুবসমাজকে রক্ষা করতে সৈয়দপুরে মুক্তিযোদ্ধা-জনতা সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত বুধবার সন্ধ্যায় এটি হয় সৈয়দপুর পৌরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ডের গোলাহাট এলাকার ডাঙ্গাপাড়া পুরাতন ঈদগাহ্ মাঠে। এতে উপস্থিত হাজারো জনতা-মুক্তিযোদ্ধা পৌর এলাকার ১ ও ২ নম্বর ওয়ার্ডকে মাদকমুক্ত করার প্রত্যয়ে শপথ গ্রহণ করেন। সম্প্রতি মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর সৈয়দপুর সার্কেল অফিসটি নীলফামারীতে স্থানান্তরিত হওয়ায় মাদক ব্যবসায়ীরা বেপরোয়া হয়ে উঠেছে বলে ওই সমাবেশ থেকে বলা হয়।

ওইদিনের সমাবেশে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য বলেন, সৈয়দপুর উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রওনক জাহান রিনু, ১নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মো. শাহিন হোসেন, মুক্তিযোদ্ধা ইব্রাহিম ভান্ডারী,মুক্তিযোদ্ধা আব্দুস শহীদ বসুনিয়া,সামসুল আলম,রহমত আলী,ইসরাইল কোরানি,আব্দুল হালিম,সাবেক ছাত্রনেতা নূরুল আমিন প্রমুখ।

এতে সভাপতিত্ব করেন সৈয়দপুর ১নং ওয়ার্ডের নারী কাউন্সিলর রাজিয়া সুলতানা। সমাবেশে বক্তারা তাদের বক্তব্যে সৈয়দপুর পৌরসভার ১ ও ২নং ওয়ার্ডের অসংখ্যক মাদক ব্যবসায়ীর নাম জনসম্মুখে প্রকাশ করেন। একই সঙ্গে ওই সব মাদক সম্রাট ও তাদের গডফাদারকে আগামী সাত দিনের মধ্যে গ্রেপ্তারের দাবি জানানো হয় জানান। অন্যথায় আগামীতে বৃহৎ আন্দোলন গড়ে তোলা হবে ওই সমাবেশ থেকে বক্তারা হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন। বক্তারা এলাকার সব রকমের মাদক ব্যবসা বন্ধ করার পাশপাশি জুয়ার আখড়াও উচ্ছেদের করার দাবি জানান।

সমাবেশ শেষে এলাকার মাদক ও জুয়া বিরোধী আন্দোলন জোরদার করতে একটি মাদক ও জুয়া বিরোধী সংগ্রাম কমিটি গঠন করা হয়েছে।

৫১ সদস্য বিশিষ্ট এ কমিটির সভাপতি করা হয়েছে সৈয়দপুর পৌরসভার সংরক্ষিত ১নং ওয়ার্ডের  (১, ২ ও ৩নং ওয়ার্ড) নারী কাউন্সিলর রাজিয়া সুলতানা ও সাধারণ সম্পাদক করা হয়েছে ১নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মো. শাহিন হোসেনকে।


সৈয়দপুর মাদকসেবনের দায়ে চারজনের সাজা

সৈয়দপুরে চার মাদকসেবীকে বিভিন্ন মেয়াদে অর্থ ও কারাদণ্ড প্রদান করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে ওই সাজা দেওয়া হয়েছে। কারাদণ্ডপ্রাপ্ত দুইজন হচ্ছে, শহরের মিস্ত্রীপাড়ার ইদ্রিস আলীর ছেলে গুড্ডু (৩০), নতুন বাবুপাড়ার মৃত. আনোয়ারের ছেলে দুলাল (৪৪)। এদের মধ্যে গুড্ডুকে ছয় মাসের এবং দুলালকে এক মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করা হয়। এছাড়াও শহরের অফিসার্স কলোনি (হাতিখানা) এলাকার গোলাম মোস্তফার ছেলে শাহনেওয়াজ (২৫) এবং একই এলাকার সাব্বিরের ছেলে নাসিমকে (৩২) দুই হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক সৈয়দপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আবু ছালেহ মো. মুসা জঙ্গী ওই অর্থ ও কারাদণ্ড প্রদান করেন।

সৈয়দপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আমিরুল ইসলাম জানান, প্রকাশ্যে মাদক সেবনের দায়ে গত বুধবার রাতে শহরের বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়। পরে গতকাল বৃহস্পতিবার ভ্রাম্যমান আদালতে প্রেরণ করলে আদালত তাদের ওই অর্থ ও কারাদন্ড দেন। কারাদন্ডপ্রাপ্ত দুইজনকে গতকালই নীলফামারী জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।


মন্তব্য