kalerkantho


তদন্তে তেমন অগ্রগতি নেই

কুড়িগ্রামে মুক্তিযোদ্ধা হত্যায় মামলা, আটক ৮

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি    

২৩ মার্চ, ২০১৬ ১৮:০৯



কুড়িগ্রামে মুক্তিযোদ্ধা হত্যায় মামলা, আটক ৮

কুড়িগ্রাম শহরের গাড়িয়াল পাড়ায় ধর্মান্তরিত মুক্তিযোদ্ধা হোসেন আলী  হত্যায় সদর থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। আজ বুধবার ভোরে নিহতের ছেলে রাহুল আমিন আজাদ অজ্ঞাতদের আসামি করে মামলাটি দায়ের করেন।

এ পর্যন্ত সন্দেহভাজন আটজনকে আটক করে জিঙ্গাসাবাদ করা হয়েছে। এদের তিনজনকে ১৫৪ ধারায় আটক দেখিয়ে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। বাকিদের পুলিশের হেফাজতে রেখে জিঙ্গাসাবাদ করা হচ্ছে বলে পুলিশ সূত্রে জানা গেছে। আজ বুধবার সকাল থেকে পিবিআই (পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন), টিএফআই (টাস্কফোর্স ইন্টারোগেশন ইউনিট), কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটসহ পুলিশের বিভিন্ন গোয়েন্দা শাখার সদস্যরা এলাকা পরির্দশন করে তদন্ত শুরু করেছেন।

কুড়িগ্রামের পুলিশ সুপার জানিয়েছেন, তাঁরা বিভিন্ন দিক সামনে রেখে তদন্ত অব্যাহত রেখেছেন। পুলিশের বিভিন্ন ইউনিট আলাদাভাবে তদন্ত  করছেন। তবে বলার মতো কোনো অগ্রগতি হয়নি বলে তিনি জানান। আজ বুধবার বিকেলে মুক্তিযোদ্ধা সংসদের উদ্যোগে জেলা সদরসহ ৯টি উপজেলায় হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছেন।

গতকাল মঙ্গলবার সকাল ৭টার দিকে বাড়ির সামনে হাঁটাহাঁটি করার সময় গিয়ে হোসেন আলী দুর্বৃত্তদের হামলার শিকার হন।

শহরের গাড়িয়ালপাড়া এলাকার বাসিন্দা মুক্তিযোদ্ধা হোসেন আলীকে (৬৮) বাড়ির পাশের রাস্তায় তিন মোটরসাইকেল আরোহী গলা কেটে হত্যা করে।    

 


মন্তব্য