kalerkantho

25th march banner

ইউপি নির্বাচন

নালিতাবাড়ীতে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ ৮, বিএনপি ১

শেরপুর প্রতিনিধি    

২৩ মার্চ, ২০১৬ ০৯:৫৯



নালিতাবাড়ীতে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ ৮, বিএনপি ১

শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলার ১২ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ ৮, বিএনপি ১ এবং স্বতন্ত্র তিন প্রার্থী জয়ী হয়েছেন।

১ নম্বর পোড়াগাঁও ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে মোট ৯টি কেন্দ্রের প্রাপ্ত ফল অনুযায়ী চেয়ারম্যান পদে মোটরসাইকেল প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী আজাদ মিয়া দুই হাজার ৯২১ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগ সমর্থিত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী বন্দনা চাম্বুগং পেয়েছেন দুই হাজার ৭৩৯ ভোট। এ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে চারজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।

২ নম্বর নন্নী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে মোট ৯টি কেন্দ্রের প্রাপ্ত ফল অনুযায়ী চেয়ারম্যান পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী বিএনপির বিদ্রোহী চশমা  প্রতীকের প্রার্থী এ কে এম মাহবুবুর রহমান রিটন তিন হাজার ১৯৬ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগ সমর্থিত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী বিল্লাল হোসেন চৌধুরী পেয়েছেন দুই  হাজার ৯৯৯ ভোট। এ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ছয়জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।

৩ নম্বর রাজনগর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে মোট ৯টি কেন্দ্রের প্রাপ্ত ফল অনুযায়ী চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী ফারুক আহমেদ বকুল ছয় হাজার ৬৩২ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী আতাউর রহমান আতা পেয়েছেন তিন হাজার ৫২১ ভোট। এ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে পাঁচজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।

৪ নম্বর নয়াবিল ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে মোট ৯টি কেন্দ্রের প্রাপ্ত ফল অনুযায়ী চেয়ারম্যান পদে বিএনপি সমর্থিত ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী ইউনুছ দেওয়ান তিন হাজার ৬৪৫ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগ সমর্থিত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী  নূর ইসলাম পেয়েছেন তিন হাজার ২২২ ভোট। এ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে তিনজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।

৫ নম্বর রামচন্দ্রকুড়া-মণ্ডালিয়াপাড়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে মোট ৯টি কেন্দ্রের প্রাপ্ত ফল অনুযায়ী চেয়ারম্যান পদে স্বতন্ত্র প্রার্থী আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী মোটরসাইকেল প্রতীকের প্রার্থী খোরশেদ আলম খোকা চার হাজার ৫৩২ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগ সমর্থিত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আমান উল্লাহ বাদশা পেয়েছেন তিন হাজার ১৮০ ভোট। এ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে তিনজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।

৬ নম্বর কাকরকান্দি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে মোট ৯টি কেন্দ্রের প্রাপ্ত ফল অনুযায়ী চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ সমর্থিত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী শহীদ উল্লাহ তালুকদার মুকুল চার হাজার ৪৩৫ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী আনারস প্রতীকের মো. নাজিম উদ্দিন পেয়েছেন দুই হাজার ২৪৬ ভোট। এ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে সাতজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।

৭ নম্বর নালিতাবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে মোট ৯টি কেন্দ্রের প্রাপ্ত ফল অনুযায়ী চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ সমর্থিত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আসাদুজ্জামান আসাদ দুই হাজার ৮৫৯ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী বিএনপি বিদ্রোহী চশমা প্রতীকের প্রার্থী খাদেমুল ইসলাম পেয়েছেন দুই হাজার ৩৫৬ ভোট। এ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে চারজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।

৮ নম্বর রূপনারায়ণকুড়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে মোট ৯টি কেন্দ্রের প্রাপ্ত ফল অনুযায়ী চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ সমর্থিত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী মিজানুর রহমান মিজান তিন হাজার ১০ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী ঘোড়া প্রতীকের প্রার্থী মঞ্জুরুল আলম মামুন দুই হাজার ৬৫৮ ভোট পেয়েছেন। এ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে তিনজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।

৯ নম্বর মরিচপুরাণ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে মোট ১০টি কেন্দ্রের প্রাপ্ত ফল অনুযায়ী চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ সমর্থিত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী শফিকুল ইসলাম শফিক পাঁচ হাজার ৯৩৯ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপি সমর্থিত ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী আইয়ুব আলী পেয়েছেন চার হাজার ৩২৪ ভোট। এ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে দুইজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।

১০নং যোগানিয়া ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে মোট ৯টি কেন্দ্রের প্রাপ্ত ফলাফলে চেয়ারম্যান পদে আ'লীগ সমর্থিত নেৌকা প্রতিকের প্রার্থী হাবিবুর রহমান হাবি ৩ হাজার ৮৬৫ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি স্বতন্ত্র প্রাথর্ী আ'লীগ বিদ্রোহী ঘোড়া প্রতিকের তাকিজুল ইসলাম তারা পেয়েছেন ২ হাজার ৮৫৩ ভোট। এ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৪ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।

১১ নম্বর বাঘবেড় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে মোট ১০টি কেন্দ্রের প্রাপ্ত ফল অনুযায়ী চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ সমর্থিত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আব্দুস সবুর চার হাজার ৩০০ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী মোটরসাইকেল প্রতীকের প্রার্থী হাসানুজ্জামান রিয়াদ পেয়েছেন দুই হাজার ৭৫৮ ভোট। এ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে পাঁচজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।

১২ নম্বর কলসপাড় ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে মোট ১০টি কেন্দ্রের প্রাপ্ত ফল অনুযায়ী চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ সমর্থিত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আবুল কাশেম তিন হাজার ৪০৮ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী বিএনপি বিদ্রোহী আনারস প্রতীকের কামরুজ্জামান পেয়েছেন তিন হাজার চার ভোট। এ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ছয়জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।

 


মন্তব্য