kalerkantho


পাথরঘাটায় বিএনপির তিন চেয়ারম্যান প্রার্থীর ভোট বর্জন

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২২ মার্চ, ২০১৬ ১৭:০৩



পাথরঘাটায় বিএনপির তিন চেয়ারম্যান প্রার্থীর ভোট বর্জন

ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বরগুনার পাথরঘাটার তিন ইউনিয়নে বিএনপি সমর্থিত তিন চেয়ারম্যান প্রার্থী ভোট বর্জন করেছেন। এজেন্ট বের করে দেওয়া, টেবিলে প্রকাশ্যে ভোট দিতে বাধ্য করা এবং এজেন্টদের মারধর করার অভিযোগে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে ভোট বর্জনের ঘোষণা দেন তিনি।

অন্যদিকে, সদস্য প্রার্থী চরদুয়ানী ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. মজিবুর রহমান নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন।

ভোট বর্জনকারী বিএনপির তিন প্রার্থী হলেন পাথরঘাটা উপজেলা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ও সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান প্রার্থী এম মতিউর রহমান মোল্লা, চরদুয়ানী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান প্রার্থী এম কামরুল ইসলাম এবং নাচনাপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. কামরুজ্জামান রব। বেলা ১১টায় তাঁরা নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা থেকে সরে দাঁড়ান। বেলা দেড় টায় তাঁরা সংবাদ সম্মেলন করে এ তথ্য জানান।

সংবাদ সম্মেলনে পাথরঘাটা উপজেলা বিএনপির সম্পাদক মো. ফারুক চৌধুরী, পাথরঘাটা পৌর বিএনপির নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিল। মতিউর রহমান মোল্লা জানান, তাঁর কর্মী ও এজন্টেদের জোর করে বের করে দেওয়া হয়েছে। চরদুয়ানী ইউনিয়ন থেকে বিএনপি প্রার্থী এম কামরুল ইসলাম জানান, তার এজেন্ট বের করে দিয়ে আওয়ামী লীগদলীয় প্রার্থী হাফিজ উদ্দিন আহমেদ ফিরোজ নিজেই প্রকাশ্যে নৌকায় সিল মারেন।

অপরদিকে, চরদুয়ানী ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের  সাধারণ সম্পাদক ও সদস্য প্রার্থী মো. মজিবুর রহমান জানান, আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী হাফিজ উদ্দিন আহমেদ ফিরোজ ও সদস্য প্রার্থী মো. খলিলুর রহমান যৌথভাবে প্রকাশ্যে তাদের ব্যালটে সিল মেরে বাক্স ভরেন। তিনি দাবি করেন, প্রশাসনকে জানানো হলেও কোনো  প্রতিকার পাননি তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি ভোট বর্জনের ঘোষণা  দেন।

 


মন্তব্য