kalerkantho


ঝিনাইদহে গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগ, স্বামী পলাতক

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২০ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



ঝিনাইদহে গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগ, স্বামী পলাতক

ঝিনাইদহে শারমিন আক্তার (২৫) নামে এক গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। শৈলকুপা উপজেলার ৬নম্বর সারুটিয়া ইউনিয়নের চর মৌকুড়ি গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটে। আজ শনিবার সকালে চর মৌকুড়ি গ্রামের তার স্বামীর বাড়ি থেকে লাশটি উদ্ধার করে পুলিশ। এদিকে এ ঘটনার পর শারমিনের স্বামীসহ শ্বশুরবাড়ির সব লোক পলাতক রয়েছে। নিহত শারমিন একই গ্রামের আনসার শেখের মেয়ে।

শারমিনের চাচা রেজাউল অভিযোগ করেন, তার ভাতিজিকে শ্বশুরবাড়ির লোকেরা হত্যা করেছে। এলাকাবাসীর কাছে তারা খবর পেয়ে এসেছেন।

শারমিনের ভাই ডাল্টন জানান, ৬ বছর আগে একই গ্রামের রাশেদের ছেলে উজ্জ্বলের সঙ্গে বিয়ে হয় শারমিন আক্তারের। বিয়ের পর থেকে প্রায় নেশাগ্রস্ত হয়ে উজ্জ্বল তার বোনকে নির্যাতন করত। গ্রাম্য সালিশের মাধ্যমে কয়েকবার এ ধরনের ঘটনার মীমাংসা করা হয়। গতকালও আমি শুনেছিলাম নির্যাতনের কথা। আজ তাকে নিয়ে যেতে চেয়েছিলাম। কিন্তু তার আগেই তাকে মেরে ফেলে তারা পালিয়েছে।

এ বিষয়ে শৈলকুপা থানার এসআই গোকুল জানান, লাশের সুরতহাল রিপোর্ট প্রস্তুত করেছি। তার গায়ে আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। ময়নাতদন্ত শেষে বলা যাবে আসল রহস্য।

এ ব্যাপারে শৈলকুপা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহিবুল ইসলাম জানান, প্রাথমিকভাবে আত্মহত্যা বলে মনে হচ্ছে। তবে সন্দেহ থাকায় ময়নাতদন্তের জন্য লাশ মর্গে পাঠানো হয়েছে।


মন্তব্য