kalerkantho


বরিশালে লঞ্চ দুর্ঘটনা, ৬০০ যাত্রী অক্ষত

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৮ মার্চ, ২০১৬ ১৯:২৮



বরিশালে লঞ্চ দুর্ঘটনা, ৬০০ যাত্রী অক্ষত

ডুবে যাওয়া বাল্কহেডে ধাক্ক দিয়ে ঢাকা-পটুয়াখালী রুটের একটি লঞ্চের তলা ফেটে গেলেও অক্ষত রয়েছেন লঞ্চটির প্রায় ৬০০ যাত্রী।  গতকাল বৃহস্পতিবার গভীর রাতে বরিশালের মেহেন্দিগঞ্জ-হিজলার সীমান্তবর্তী মিয়ারচর এলাকায় মেঘনা নদীতে এ দুর্ঘটনায় পড়ে ‘এমভি সুন্দরবন-৯’।  এ সময় লঞ্চের চালক তাৎক্ষণিকভাবে লঞ্চটি চরে উঠিয়ে দেওয়ায় বড় ধরনের কোনো বিপদ ঘটেনি বলে জানান সংশ্লিষ্টরা জানান।

এ বিষয়ে সুন্দরবন নেভিগেশনের মালিক সাইদুর রহমান রিন্টু জানান, প্রায় ৬০০ যাত্রী নিয়ে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় ঢাকার সদরঘাট থেকে পটুয়াখালীর উদ্দেশে রওয়ানা হয় সুন্দরবন-৯।

তিনি বলেন, রাত সোয়া ১টার দিকে লঞ্চটি মিয়ারচর এলাকায় পৌঁছালে দুদিন আগে ডুবে যাওয়া একটি বালুবাহী বাল্কহেডের সঙ্গে ধাক্কা লাগে। এতে লঞ্চটির তলা ফেটে গিয়ে ভিতরে পানি ঢুকতে শুরু করে।  

প্রসঙ্গত, গত মঙ্গলবার একটি লঞ্চের সঙ্গে সংঘর্ষের পর বাল্কহেডটি মিয়াচর পয়েন্টে ডুবে যায়।

সাইদুর রহমান বলেন, ওই সময় চালক লঞ্চটিকে একটি চরে উঠিয়ে দেওয়ায় বড় দুর্ঘটনা থেকে লঞ্চটি বেঁচে যায়। তিনি আরো বলেন, লঞ্চের যাত্রীদের গন্তব্যে পৌঁছে দিতে রাতেই সুন্দরবন-১১ নামের অপর একটি লঞ্চ ঘটনাস্থলের উদ্দেশে রওয়ানা হয় এবং ভোর ৬টার দিকে ঘটনাস্থল থেকে যাত্রীদের নিয়ে দুপুরে সোয়া ১টায় পটুয়াখালী পৌঁছে।

তিনি জানান, ঘটনাস্থলে দুর্ঘটনাকবলিত লঞ্চটির মেরামতের কাজ চলছে। পরে সেটি ঢাকায় ফিরিয়ে নেওয়া হবে।


মন্তব্য