kalerkantho


ইউপি নির্বাচন

বরগুনার বিভিন্ন স্থানে হামলা ও ভাঙচুর

বরগুনা প্রতিনিধি    

১৮ মার্চ, ২০১৬ ১৬:৩০



বরগুনার বিভিন্ন স্থানে হামলা ও ভাঙচুর

বরগুনায় গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে ও আজ শুক্রবার দুপুরে ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে বিভিন্ন স্থানে হামলা ও ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে।

গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বেতাগী উপজেলার দুই নম্বর বেতাগী ইউনিয়নের আট নম্বর ওয়ার্ডে ঘোড়া প্রতীকের স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী ফারিয়া সংগ্রাম আমিনুলের পূর্বনির্ধারিত সভায় উপস্থিত স্থানীয় ভোটারদের ওপর হামলা করে নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী নজরুল ইসলামের কর্মীরা। পরে পুলিশের সহায়তায় সভা শেষে স্থান ত্যাগ করেন ঘোড়া প্রতীকের প্রার্থীর কর্মী ও ভোটাররা। আজ শুক্রবার দুপুরে বেতাগী ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ডে নৌকা প্রতীকের বহিরাগত সমর্থকরা পুনরায় হামলা চালায় ঘোড়া প্রতীকের স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীর কর্মীদের ওপর। এ সময় তাদের হামলায় মনিরুল ইসলাম (৩৫) নামের একজন গুরুতর আহত হন।

এদিকে, গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে ঢলুয়া ইউনিয়নে নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী আজিজুল হক স্বপনের কর্মীদের হামলায় গুরুতর আহত হন বিএনপি সমর্থিত চেয়ারম্যান প্রার্থী আবু হেনা মোস্তফা কামাল টিটুর ছোট ভাই লিটন (৪০)। এ ঘটনায় জড়িত অভিযোগে স্থানীয় আওয়ামী লীগের পাঁচ নেতাকর্মীকে আটক করে পুলিশ। আটককৃতদের দেহ তল্লাশি করে ৫০ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। এ ছাড়া বামনা উপজেলার রামনা ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ প্রার্থী নজরুল ইসলামের সভাস্থলে কেরোসিন বোমার বিস্ফোরণ ঘটায় দুর্বৃত্তরা।

এ ইউনিয়নের বিএনপি মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী জাহাঙ্গীর কবীরের অভিযোগ, রাতে আওয়ামী লীগের কর্মীরা খোলপটুয়া বাজারে তাঁদের নির্বাচনী কার্যালয়ের আসবাবপত্র এবং টেলিভিশন ভাঙচুর করে। ডৌয়াতলা ইউনিয়নের আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী শাহজালালও একই অভিযোগ করে জানান, ডৌয়াতলা বাজারে স্বতন্ত্র প্রার্থী মিজানুর রহমানের কর্মীরা তাঁদের নির্বাচনী কার্যালয় ও আসবাবপত্র ভাঙচুর করে।

 


মন্তব্য