kalerkantho


পুঠিয়ায় বৃদ্ধকে হাতুড়িপেটার পর কুপিয়ে হত্যা

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী   

১৮ মার্চ, ২০১৬ ১৩:৫০



পুঠিয়ায় বৃদ্ধকে হাতুড়িপেটার পর কুপিয়ে হত্যা

রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলায় শুক্রবার সকালে এক বৃদ্ধকে হাতুড়ি দিয়ে পেটানোর পর কুপিয়ে হত্যার ঘটনা ঘটেছে। নিহত ওই বৃদ্ধের নাম নজরুল ইসলাম (৫৫)।

তার বাড়ি উপজেলার গোন্ডগোহালী পূর্বপাড়া গ্রামে। জমিজমাসংক্রান্ত ঘটনার জের ধরে ওই বৃদ্ধকে আজ দিনে-দুপুরে খুন করে একই এলাকার শমসেরের ছেলে আসাব আলী (৪০)। এ ঘটনার পরে এলাকাবাসী আসাবকে হাতে-নাতে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে।

এলাকাবাসী ও পারিবারিক সূত্র জানায়, নজরুল আজ সকাল ৮টার দিকে গোন্ডগোহালী নিমতলা মোড় থেকে বাইসাইকেলযোগে বিলের ভিতর দিয়ে বাড়ি ফিরছিলেন। পথে বিলের মধ্যে ব্রিজের ওপর আসামাত্র আসাব আলী তার বাইসাইকেলের গতিরোধ করে। এর পর আসাব তার হাতে থাকা হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে বৃদ্ধ নজরুলকে মাটিতে ফেলে দেয়। একপর্যায়ে নজরুলকে ছুরি দিয়ে কুপিয়ে হত্যা নিশ্চিত করা হয়। হত্যার পর তার লাশ ব্রিজের নিচে ফেলে রেখে পালানোর চেষ্টা করে আসাব। এ সময় এলাকাবাসী টের পেয়ে তাকে ধাওয়া দিয়ে ধরে ফেলে।

পরে থানায় খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে আসাবকে আটক করে। পরে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ মর্গে পাঠানো হয়।

পুঠিয়া সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার আসলাম উদ্দিন জানান, জমিজমাসংক্রান্ত ঘটনার জের ধরে ওই বৃদ্ধকে প্রথমে পিটিয়ে এবং পরে কুপিয়ে হত্যা করে আসাব। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।

নিহতের ভাই শহিদুল ইসলাম জানান, এর আগেও আসাব কয়েকবার নজরুলের দুই ছেলের ওপর আক্রমণ করে। তাদের পরিবারের সদস্যদের হত্যার জন্য আসাব কয়েকবার চেষ্টা চালায়।

এ ব্যাপারে থানার ওসি হাফিজুর রহমান জানান, খবর পাওয়ার পর থানার এসআই মোজাম্মেল ঘটনাস্থলে গিয়ে ঘাতককে আটক করে। পরে লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে মামলার প্রস্তুতি চলছে।


মন্তব্য