kalerkantho

শুক্রবার । ২০ জানুয়ারি ২০১৭ । ৭ মাঘ ১৪২৩। ২১ রবিউস সানি ১৪৩৮।


রামগঞ্জে জলমহাল ইজারায় অনিয়মের অভিযোগ

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি   

১৭ মার্চ, ২০১৬ ২০:৫৩



রামগঞ্জে জলমহাল ইজারায় অনিয়মের অভিযোগ

লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জ উপজেলার ভোলাকোটের লক্ষ্মীধরপাড়া দিঘী ও জলমহাল সর্বোচ্চ দরদাতাকে ইজারা না দেয়ার অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আ ক ম রুহুল আমিন একটি সমিতির নামে তাঁর ভগ্নিপতি ইউছুফ কামালকে ইজারা পাইয়ে দিয়েছেন। বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক লিয়াকত হোসেন ইরান তাঁর ব্যাক্তিগত কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ তোলেন। তবে অভিযোগ অস্বীকার করেছেন আওয়ামীলীগ নেতা।

ওই যুবলীগ নেতার ভাষ্যমতে, উপজেলা প্রশাসন সম্প্রতি ১৯ টি জলমহাল ইজারার দরপত্র আহবান করে। ১৪ মার্চ দরপত্র দাখিলের শেষ দিনে লক্ষ্মীধরপাড়া দিঘী ইজারার জন্য উপজেলা যুবলীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক মো. মহসিন ৫ লাখ ৫৫ হাজার টাকায় দরপত্র দাখিল করেন। পরে ওই দিঘীটি ৪ লাখ ২০ হাজার টাকায় ইউছুফ কামালকে ইজারা দেয়া হয়।

যুবলীগ নেতা লিয়াকত হোসেন ইরান বলেন,উপজেলা চেয়ারম্যান প্রশাসনকে ম্যানেজ করে তাঁর ভগ্নিপতিকে জলমহাল ইজারা পাইয়ে দিয়েছেন। যেখানে যুবলীগ নেতা মহসিন সর্বোচ্চ দরদাতা, সেখানে ইউছুফ কামাল ইজারা কিভাবে পান?। তিনি এ উজারা বাতিলের দাবি জানান।                                                                                         

তবে অভিযোগ অস্বীকার করে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আ ক ম রুহুল আমিন বলেন, নিয়ম মেনেই ৪ লাখ ২০ হাজার টাকায় ইউছুফ কামাল দিঘী ইজারা পেয়েছেন। উপজেলার জলমহালগুলো থেকে এবার প্রায় ১৫ লাখ টাকা বেশি আয় হয়েছে।


মন্তব্য