kalerkantho

মঙ্গলবার । ২৪ জানুয়ারি ২০১৭ । ১১ মাঘ ১৪২৩। ২৫ রবিউস সানি ১৪৩৮।


মঠবাড়িয়ায় ইউপি নির্বাচনী সহিংসতায় আহত ১০

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, পিরোজপুর   

১৭ মার্চ, ২০১৬ ১৯:২৮



মঠবাড়িয়ায় ইউপি নির্বাচনী সহিংসতায় আহত ১০

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলার ধানীসাফা ইউনিয়ন বাজারে আজ বৃহস্পতিবার স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী রফিকুল ইসলামের ছয় সমর্থককে পিটিয়ে আহত করেছে আ’লীগ চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকরা। এ সময় স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীর ছয়টি মোটরসাইকেলও ভাংচুর করা হয়।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে সাফা বাজার এলাকায় এ হামলার ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী রফিকুল ইসলামের চশমা প্রতীকের সমর্থকেরা প্রচারণা চালানোর সময় আ’লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী হারুন অর রশিদের নৌকা প্রতীকের সমর্থকরা হামলা চালায়। এতে আবদুল বারেক (৫৫), এমাদুল আকন (৪০), আবদুল মালেক মোল্লা (৪০), শাহীন শরীফ (৩৫), মো. সানাউল হক (২৩) ও মাসুম হাওলাদার (২৫) আহত হন। এ সময় আহতদের ছয়টি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করা হয়।

খবর পেয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী রফিকুল ইসলামের বিক্ষুদ্ধ সমর্থকরা স্থানীয় আলগী বাজারের আ’লীগ অফিস ভাংচুর করে।

সংঘর্ষের খবর পেয়ে মঠবাড়িয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এসএম ফরিদ উদ্দিন, মঠবাড়িয়া সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার মোস্তফা কামাল ও থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) খন্দকার মোস্তাফিজুর রহমান সাফা বাজার ও আলগী বাজার দুটি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

এ ছাড়া বুধবার বিকেলে উপজেলার ৬নম্বর টিকিকাটা ইউনিয়নের স্থানীয় কুমিরমারা গ্রামে আ’লীগ সমর্থিত রফিকুল ইসলাম রিপনের নৌকা প্রতীকের পোষ্টার লাগানোর সময় স্বপন বেপারী (৩৫) কে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী হোসেন মোশারফ সাকুর সমর্থকরা বাধা দেয়। এরপর স্বপনকে একটি গাছের সাথে বেধে রড দিয়ে পিটিয়ে আহত করা হয়। গুরুতর আহত স্বপনকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

অপরদিকে বুধবার রাতে গণসংযোগ শেষে বাড়ি ফেরার পথে বেতমোর রাজপাড়া ইউপির ৩নম্বর সংরক্ষিত আসনের মহিলা প্রার্থী রাশিদা বেগমের অনার্স পড়ুয়া ছেলে মামুন খানের (২২) ওপর হামলা চালায় একদল দুর্বৃত্ত। গুরুতর আহত মামুনকে মঠবাড়িয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় মঠবাড়িয়া থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করা হয়েছে।


মন্তব্য