kalerkantho

মঙ্গলবার । ১৭ জানুয়ারি ২০১৭ । ৪ মাঘ ১৪২৩। ১৮ রবিউস সানি ১৪৩৮।


ভোলায় বিষাক্ত রক্ত খেয়ে মারা যাচ্ছে কুকুর

ভোলা প্রতিনিধি   

১৬ মার্চ, ২০১৬ ২০:২১



ভোলায় বিষাক্ত রক্ত খেয়ে মারা যাচ্ছে কুকুর

ভোলায় কসাই খানার পঁচে যাওয়া বিষাক্ত রক্ত খেয়ে ফুড পয়জনিং হয়ে মারা যাচ্ছে কুকুর। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, আজ বুধবার সকাল থেকে শহরের বাংলাস্কুল মাঠ, খালপাড় সড়ক, কসাই পট্টি, নতুন বাজার, উপজেলা পরিষদ সড়ক, ওয়েষ্টার্ণ পাড়াসহ বিভিন্ন এলাকায় অন্তত ৮টি কুকুর মারা গেছে। স্থানীয়রা পৌরসভায় খবর দিলে পৌর কর্তৃপক্ষ মৃত কুকুরগুলো সকাল ১১টায় সরিয়ে নিয়ে মাটি দেওয়ার ব্যবস্থা করে। খবর পেয়ে জেলা প্রাণী সম্পদ কার্যালয়ের একটি দল মাঠ পর্যায়ে পর্যবেক্ষণ করেন এবং কসাই খানার বিষাক্ত রক্ত খেয়ে ফুড পয়জনিং হয়ে কুকুরগুলোর মৃত্যু হয়েছে বলে নিশ্চিত হন।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে ভোলা জেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডা. প্রদীপ কুমার কর্মকার জানান, শহরের বিভিন্ন স্থানে কুকুরের মৃত্যু হওয়ার ঘটনার খবর পেয়ে ৫ সদস্যের একটি বিশেষজ্ঞ দল ঘটনার তদন্ত করেছে। তাদের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী শহরের খালপাড়ে রাস্তা সংলগ্ন কসাই খানায় প্রতিদিন ১৫ থেকে ২০টি গরু-ছাগল জবাই করা হয়। সেই পশুগুলোর রক্ত কসাই খানার সামনে সকাল থেকে জমে থাকে। এক পর্যায়ে রক্তগুলো পঁচে বিষাক্ত হয়ে যায়। সেই বিষাক্ত রক্ত খেয়ে ফুড পয়জনিং হয়ে বেশ কিছু কুকুরের মৃতু হয়েছে।

তিনি আরো জানান, শুধু কুকুর নয়, এসব রক্ত খেয়ে অনান্য প্রাণীরও মৃত্যু হতে পারে। তাই এমন ঘটনা এড়াতে পশু জবাইয়ের পর জমে থাকা রক্ত নিষ্কাশন ও ওই স্থান এন্টিবায়োটিক দিয়ে ধুয়ে ফেলতে হবে। কোন ভাবেই যেন রক্ত জমাট বাধতে না পারে সে ব্যাপারে স্থানীয় কসাইদের সচেতন করার ব্যবস্থা করতে হবে।


মন্তব্য