kalerkantho


নিজামীর আত্মীয় হওয়ায় গণপূর্ত অধিদপ্তরের প্রকৌশলীকে লাঞ্ছিত

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি   

১৬ মার্চ, ২০১৬ ১৯:৪২



নিজামীর আত্মীয় হওয়ায় গণপূর্ত অধিদপ্তরের প্রকৌশলীকে লাঞ্ছিত

জামায়াতে ইসলামীর শীর্ষ নেতা ফাঁসির আসামি মতিউর রহমান নিজামীর আত্মীয় হওয়ার কারণে টুঙ্গীপাড়ায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিতে বিক্ষুব্ধ জনতার হাতে লাঞ্ছিত হয়েছেন গণপূর্ত অধিদপ্তরের বরিশাল জোনের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী আমিনুল ইসলাম।

জানা গেছে, আজ বুধবার দুপুরে গণপূর্ত অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী হাফিজুর রহমান মুন্সীসহ ওই অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী টুঙ্গীপাড়ায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিতে পরিদর্শনে যান। এ সময় অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী আমিনুল ইসলাম জামায়াত নেতা মতিউর রহমান নিজামীর ভাগ্নে হওয়ায় স্থানীয় লোকজন তাকে ঘিরে ফেলে গলা ধাক্কা দিয়ে মাজার থেকে বের করে দেন। এ ঘটনার পর পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে গণপূর্ত অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী হাফিজুর রহমান মুন্সী স্থানীয়দের সাথে কথা বলেন। স্থানীয় লোকজন অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলীকে তাৎক্ষণিকভাবে বরখাস্ত করার দাবি জানান। পরে প্রধান প্রকৌশলী উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন বলে আশ্বাস দিয়ে অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী আমিনুল ইসলামকে নিয়ে ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন।

তবে অভিযাগ রয়েছে, আমিনুল ইসলাম বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের আমলে বগুড়ায় গণপূর্ত অধিদপ্তরের একজন ক্ষমতাধর তত্বাবধায়ক প্রকৌশলী ছিলেন।

এ বিষয়ে জানতে প্রকৌশলী আমিনুল ইসলামের মোবাইল ফোনে (নম্বর-০১৭১১-৩৯৫৫৩০) বারবার ফোন দিলেও ফোন রিসিভ না করায় তার বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।

এদিকে এ প্রসঙ্গে গণপূর্ত অধিদপ্তরের প্রধান প্রকোশলী হাফিজুর রহমান মুন্সীর সঙ্গে মোবাইল ফোনে কথা হলে তিনি প্রকৌশলী লাঞ্ছিতের বিষয়টি অস্বীকার করে বলেন, স্থানীয় লোকজন একটি দাবি করেছেন সে দাবিটি উর্দ্ধতন কতৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ ব্যাপারে টুঙ্গীপাড়া থানার অফিসার ওসি মাহমুদুল হক জানান, ধাঁক্কাধাঁক্কি ঘটনাটি আমি শুনেছি।

গোপালগঞ্জ গণপূর্ত অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী বিজয় কুমার মণ্ডল এ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন।

 

 


মন্তব্য