kalerkantho


নালিতাবাড়ীতে অবৈধ স্থাপনা গুড়িয়ে বন বিভাগের জমি উদ্ধার

শেরপুর প্রতিনিধি   

১৫ মার্চ, ২০১৬ ২৩:২৩



নালিতাবাড়ীতে অবৈধ স্থাপনা গুড়িয়ে বন বিভাগের জমি উদ্ধার

শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলার রাজনগর মৌজার বনগাঁও এলাকায় ভূমিদস্যু চক্রের অবৈধ স্থাপনা গুড়িয়ে বন বিভাগের ৫০ শতক জমি উদ্ধার করেছে প্রশাসন। আজ মঙ্গলবার দুপুরে নালিতাবাড়ী উপজেলা প্রশাসন, বন বিভাগ ও পুলিশ যৌথভাবে এ অভিযান পরিচালনা করে। ঘন্টাব্যাপী এ অভিযানকালে অবৈধ জবরদখলকারীদের প্রতিহত করে তাদের তৈরি ঘরবাড়ী ও অবৈধ স্থাপনা গুড়িয়ে দিয়ে সেগুলো জব্দ করা হয়।

এ উচ্ছেদ অভিযানের সত্যতা নিশ্চিত করে শেরপুরের সহকারী বন সংরক্ষক মো. রেজাউল করিম চৌধুরী জানান, নালিতাবাড়ীর রাজনগর মৌজার বনগাঁও তহশীল অফিস সংলগ্ন বন বিভাগের বি.আর.এস. ৬০১ নং দাগ এবং জেলা প্রশাসনের বি.আর.এস. ৬০২ নং দাগে স্থানীয় একটি ভূমিদস্যু চক্র বেশ কিছুদিন যাবত প্রায় ৫০ শতক সরকারী ভূমি জবরদখলের পাঁয়তারা করে আসছিল। তহশীল অফিসের পার্শ্বে কিছু জায়গায় ভূমিদস্যু চক্র অবৈধ স্থাপনা তৈরি, গাছ কাটা ছাড়াও তারা প্রতিনিয়ত নতুন করে আরও অধিক সরকারী ভূমি দখলের নতুন নতুন কৌশল অবলম্বন করে যাচ্ছিল। এমনকি তাদের অবৈধ দখলদারীত্ব যাতে সরকার উচ্ছেদ করতে না পারে সেজন্য জেলা প্রশাসক, শেরপুর ও বন বিভাগের বিরুদ্ধে আদালত থেকে নিষেধাজ্ঞা জারির মামলা করতেও কুন্ঠাবোধ করেনি। তবে জবরদখলকৃত ভূমি সমূহ খোদ সরকারের হওয়ায় এবং সেখানে হাসপাতাল নির্মাণের মত জনগুরুত্বপূর্ণ উন্নয়নমূলক কাজ চলমান থাকায় আদালত দুটি নিষেধাজ্ঞা মামলাই সম্প্রতি খারিজ করে দেন। পরে জেলা প্রশাসকের নির্দেশে মঙ্গলবার নালিতাবাড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আবু সাইদ মোল্লার নেতৃত্বে এ উচ্ছেদ অভিযান পরিচালিত হয়। এ সময় সহকারী বন সংরক্ষক মো. রেজাউল করিম চৌধুরী, ভুমি অফিস, বন বিভাগের অন্যান্য কর্মকর্তা-কর্মচারী এবং বন বিভাগের ‘এলিফ্যান্ট রেসপন্স টিমের’ সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

এ ব্যাপারে নালিতাবাড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আবু সাইদ মোল্লা জানান, রাজনগরে অবৈধ দখলদারদের স্থাপনা ধ্বংস করে প্রায় অর্ধ একর সরকারি জমি উদ্ধার করা হয়েছে। বেশ কিছুদিন যাবত এসব অবৈধ দখলদাররা এ জমি জবরদখল করেছিল।


মন্তব্য