kalerkantho


মেহেরপুরে ধর্ষণ চেষ্টা মামলায় এক ব্যক্তির ৫ বছর কারাদণ্ড

মেহেরপুর প্রতিনিধি   

১৫ মার্চ, ২০১৬ ১৮:৪৯



মেহেরপুরে ধর্ষণ চেষ্টা মামলায় এক ব্যক্তির ৫ বছর কারাদণ্ড

মেহেরপুরে ধর্ষণ চেষ্টা মামলায় আব্দুস সামাদ নামের এক ব্যক্তিকে ৫ বছর সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা ও অনাদায়ে আরো দুই মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়। আজ মঙ্গলবার বিকালে মেহেরপুরের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. রবিউল হাসান এ আদেশ দেন। দণ্ডিত আব্দুস সামাদ মুজিবনগর উপজেলার ভবের পাড়া গ্রামের সাত্তার দফাদারের ছেলে।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, আসামি আব্দুস সামাদ ২০১১ সালের ৬ জুন রাতে ভবেরপাড়া গ্রামের ফরজ আলী বাড়িতে না থাকার সুযোগ খুঁজে তার বাড়িতে প্রবেশ করে তার স্ত্রী সেলিনা খাতুনকে ধর্ষণ করার চেষ্টা করে। এ সময় সেলিনা খাতুনের চিৎকারে প্রতিবেশীরা ছুটে আসলে আব্দুস সামাদ পালিয়ে গেলেও প্রতিবেশীরা তাকে চিনে ফেলে। পরে এ ঘটনায় স্থানীয়রা সালিশ করে মিমাংসা করার চেষ্টা করলে আব্দুস সামাদ সালিশে হাজির হননি। এরপরে ১০ জুলাই সেলিনা খাতুন বাদী হয়ে আব্দুস সামাদকে আসামি করে মুজিবনগর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলার প্রাথমিক তদন্ত শেষে তদন্তকারী কর্মকর্তা ২০১২ সালের ২০ সেপ্টেম্বর আদালতে
অভিযোগপত্র দাখিল করেন। মামলায় ৮ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আজ মঙ্গলবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক এ রায় প্রদান করেন।

মামলায় রাষ্ট্রপক্ষে পাবলিক প্রসিকিউটর পল্লব ভট্টাচার্য এবং আসামি পক্ষে ইয়ারুল ইসলাম আইনজীবীর দায়িত্ব পালন করেন।

 


মন্তব্য