kalerkantho

25th march banner

গোসাইরহাটে ছয় দোকানে ডাকাতি, গুলিবিদ্ধসহ আহত ২

শরীয়তপুর প্রতিনিধি    

১৫ মার্চ, ২০১৬ ১৬:২৪



গোসাইরহাটে ছয় দোকানে ডাকাতি, গুলিবিদ্ধসহ আহত ২

শরীয়তপুর জেলার গোসাইরহাট বাজারে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। গতকাল সোমবার রাত ২টার সময় এ ডাকাতির ঘটনা ঘটে। ডাকাতদের ছোড়া গুলিতে একজন গুলিবিদ্ধসহ দুইজন আহত হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় একটি মামলার প্রস্তুতি চলছে। বাজারে পুলিশি নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। তবে ঘটনায় জড়িতদের কাউকে শনাক্ত করতে পারেনি পুলিশ।
    
গোসাইরহাট থানা পুলিশ ও ব্যাবসায়ীরা জানায়, সোমবার রাতে গোসাইরহাট বাজারে চার পুলিশ সদস্য টহলরত ছিলেন। রাত ২টার দিকে ১০০ থেকে ১৫০ জনের একদল ডাকাত আধুনিক অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে গোসাইরহাট বাজারে প্রবেশ করে। বাজারে টহলরত চার পুলিশ সদস্যের  দুইজনকে হাত-পা বেঁধে রাখে। এ সময় পালিয়ে যান অন্য দুই পুলিশ সদস্য।

পরে ডাকাতদলটি গোসাইরহাট বাজারের নিউ আরকে গিনি হাউজ, জনক অলংকার ভবন, নিউ শিলা হাউজ, দীলিপ স্বর্ণ হাউজ এবং একটি মুদি দোকান ও একটি মোবাইলের দোকানের তালা ভেঙে ভেতরে ঢুকে পড়ে। এ সময় দোকানের মালামাল লুট করে নিয়ে যায় তারা। ডাকাতদলটিকে বাধা দিতে গেলে সুকমল কর্মকারকে (৩০) গুলি করে তারা। সুকমলের পিঠের ডান দিকে একটি গুলি লাগে। এ ছাড়া কৃষ্ণ দাস নামে অপর এক ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে আহত করে ডাকাতদলটি। আহতরা গোসাইরহাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে চিকিৎসা নিয়েছেন। এ সময় ডাকাতদলের সদস্যরা নগত অর্থ ও স্বর্ণালংকারসহ প্রায় এক  কোটি টাকা মূল্যের মালামাল নিয়ে যায়।

গোসাইরহাট থানার ওসি মো, মোফাজ্জল হোসেন বলেন, "ডাকাতির ঘটনা সত্য। আমাদের দুইজন পুলিশ সদস্যকে বেঁধে ডাকাতদল বাজারে ডাকাতি চালায়। খবর পেয়ে আমরা বাজারে গিয়ে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় পুলিশ সদস্যদের উদ্ধার করি। থানা থেকে পুলিশ যাওয়ার আগেই ডাকাতদলটি পালিয়ে যায়। ডাকাতের ছোড়া শটগানের গুলিতে একজন আহত হন। " তিনি বলেন, "এ ঘটনায় এখনো কোনো লিখিত অভিযোগ পাওয়া যায়নি। লিখিত অভিযোগ পেলে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে। বাজারের নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। "  
 


মন্তব্য