kalerkantho


ঈশ্বরদীতে প্রতিবেশীর মারধরে মা-মেয়ে আহত

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৪ মার্চ, ২০১৬ ২২:৫৪



ঈশ্বরদীতে প্রতিবেশীর মারধরে মা-মেয়ে আহত

ঈশ্বরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের নারী ওয়ার্ডের শয্যায় ব্যথার তীব্র যন্ত্রণায় দুই দিন ধরে কাতরাচ্ছেন পাঁচ মাসের অন্তঃসত্ত্বা বাকপ্রতিবন্ধী সুবর্ণা খাতুন (২১) ও তাঁর মা মর্জিনা খাতুন (৩৫)। প্রতিবেশী দুই ভাই ওই মা-মেয়েকে পিটিয়ে আহত করেছে বলে অভিযোগ করেছেন তাঁরা। গতকাল রবিবার পাবনার ঈশ্বরদীর দাশুড়িয়া ইউনিয়নের মুনসিদপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে মহিদুল প্রামাণিক (৩২) ও আমজাদ প্রামাণিক (৩৬) নামের ওই গ্রামের দুই বাসিন্দাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্র জানায়, গরু কিনতে গতকাল দুপুরে মর্জিনা খাতুন প্রতিবেশী আমজাদ প্রামাণিকের বাড়িতে যান। তখন গরুর দাম নিয়ে উভয়ের মধ্যে কথা কাটাকাটি হলে আমজাদের ছোট ভাই মহিদুলও ঝগড়ায় জড়িয়ে পড়েন। এক পর্যায়ে মহিদুল ও আমজাদ মর্জিনা খাতুনকে মাটিতে ফেলে দিয়ে চুল ধরে টানতে টানতে ধানের চাতালে নিয়ে গিয়ে শাবল ও লোহার রড দিয়ে নির্মমভাবে পেটাতে থাকেন। এতে মর্জিনা খাতুন অচেতন হয়ে মাটিতে পড়ে যান। মাকে রক্ষার জন্য প্রতিবন্ধী মেয়ে সুবর্না খাতুন এগিয়ে গেলে তাঁকেও মারধর করা হয়। পরে স্থানীয় লোকজন তাঁদের উদ্ধার করে ঈশ্বরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে ঈশ্বরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বিমান কুমার দাশ বলেন, এ ঘটনায় দুজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। রবিবার রাতে মর্জিনা খাতুনের ভাশুর এসকেন আলী প্রামাণিক বাদী হয়ে এ দুজনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা করেছেন। পরে আজ দুপুরে আসামি দুজনকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।


মন্তব্য