kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৮ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


ময়মনসিংহে অটোরিকশাচালক হত্যার ঘটনায় গ্রেপ্তার ৩

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১০ মার্চ, ২০১৬ ২০:১৩



ময়মনসিংহে অটোরিকশাচালক হত্যার ঘটনায় গ্রেপ্তার ৩

ময়মনসিংহে অটোরিকশাচালককে হত্যা করে অটোরিকশা ছিনতাইয়ের ঘটনায় অভিযুক্ত তিন খুনীকে গ্রেপ্তার করেছে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ। এ ঘটনার ৯ দিন পর আজ বৃহস্পতিবার ভোররাতে তাদেরকে মুক্তাগাছা সদর থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলো- সদর উপজেলার রঘুনাথপুর গ্রামের মোখলেছ আলীর দুই ছেলে স্বপন (২৫) ও সুমন (২২) এবং মুক্তাগাছা উপজেলার কুমারগাতা গ্রামের আব্দুল জলিলের ছেলে আল-আমিন (২২)।

এ ব্যাপারে ডিবির ওসি ইমারত হোসেন গাজী জানান, পয়লা মার্চ রাতে টাউনহল মোড় থেকে সাহেব কোয়ার্টার এলাকা পর্যন্ত হযরত আলীর অটোরিকশাটি ২০ টাকায় রিজার্ভ করে অভিযুক্ত আসামি স্বপন, সুমন ও আল-আমিন। রাত ১১টার দিকে তাকে হত্যা করে মরদেহটি রাস্তার পাশে ড্রেনে ফেলে অটোরিকশাটি নিয়ে পালিয়ে যায়। ওই রাতেই স্থানীয়রা লাশটি পড়ে থাকতে দেখে পুলিশকে খবর দেয়। এ ঘটনায় নিহত হযরত আলীর স্ত্রী শিখা আক্তার বাদী হয়ে কোতোয়ালী মডেল থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। পরে মামলাটি গোয়েন্দা পুলিশে হস্তান্তর করা হয়। এদিকে ছিনতাইকারীরা অটোরিকশাটি ছিনিয়ে কাঁচিঝুলি এলাকায় এসে ব্যাটারি, মর্টার ও মূল্যবান যন্ত্রপাতি খুলে অটোরিকশার বডি ফেলে পালিয়ে যায়। পরে সেগুলো মুক্তাগাছায় নিয়ে দুই হাজার টাকায় বিক্রি করে।

তিনি আরো জানান, দীর্ঘ ৯ দিন পর মোবাইল ট্র্যাকিং করে গোয়েন্দা পুলিশ মুক্তাগাছা থেকে আল-আমিনকে গ্রেপ্তার করে এবং তার কথামত সদর উপজেলার রঘুনাথপুর গ্রামের মোখলেছ আলীর দুই ছেলে স্বপন ও সুমনকে গ্রেপ্তার করে। পুলিশ ছিনতাইকৃত অটোরিকশার মালামাল জব্দ করেছে।

এদিকে পুলিশের জিঞ্জাসাবাদে গ্রেপ্তারকৃতরা হত্যার কথা স্বীকার করেছে বলে জানা গেছে।

 


মন্তব্য