kalerkantho

রবিবার । ১১ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


মাদারীপুরে সুজনের মানববন্ধন, সংগ্রামী নারীকে সংবর্ধনা

মাদারীপুর প্রতিনিধি   

১০ মার্চ, ২০১৬ ১৮:৩৮



মাদারীপুরে সুজনের মানববন্ধন, সংগ্রামী নারীকে সংবর্ধনা

'২০৩০ এর অঙ্গীকার, নারী-পুরুষের সমতা' শিরোনামে সুশাসনের জন্য নাগরিক(সুজন) মাদারীপুর জেলা শাখার আয়োজনে জাতীয় কন্যাশিশু অ্যাডভোকেসি ফোরাম, ইয়ূথ এন্ডিং হাঙ্গার ও বিকশিত নারী, এএসএফ ও দি হাঙ্গার প্রজেক্ট বাংলাদেশের সহযোগিতায় এক মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। একই সঙ্গে এক সংগ্রামী নারীকে সংবর্ধনা দেওয়া হয়েছে।

আন্তর্জাতিক নারী দিবস উপলক্ষে আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে মাদারীপুর উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের ক্লাস শেষে মানববন্ধন পালন করা হয়।    মানববন্ধন শেষে বিদ্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. এনামুল হকের সভাপতিত্বে এ সভায় অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন প্রেসক্লাবের আহ্বায়ক এবিএম বজলুর রহমান মন্টু খান, ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পাভেলুর রহমান শফিক খান, সুজনের মাদারীপুর শাখার সাধারণ সম্পাদক রাজন মাহমুদ, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রিয় উপ কমিটির সহ সম্পাদক ও বাংলাদেশ আওয়ামী মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্মলীগের কেন্দ্রিয় কমিটির সভাপতি এড. আসাদুজ্জামান দুর্জয়, যুবলীগের মাদারীপুর জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক সাইফুর রহমান রুবেল খান, কবি ও লেখক শারমিন মুর্শিদা খান কুমকুম, সহকারী প্রধান শিক্ষক কামরুন নাহার তাসমিনা খান, আলহাজ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সৈদয় আকমল হোসেন পিলু, বিটিভির সাংবাদিক মাহাবুবুর রহমান বাদল, আয়শা সিদ্দিকা আকাশী, সঞ্জয় কুমার অভিজিৎ, মেহেদী হাসান সোহাগ, শাহাদাত আকন।

এ ছাড়াও আলোচনা সভায় নারী দিবস উপলক্ষে পুলিশ অফিসার মরহুম হাবিবুর রহমান খানের স্ত্রী সফুরা হাসনে হেনাকে সংগ্রামী নারী হিসেবে সংবর্ধনা দেওয়া হয়।

জানা গেছে, স্বামী মারা যাবার পর সমাজের অনেক বাধা পেরিয়ে সংগ্রাম করে মাদারীপুরের এই সংগ্রামী নারী। তিনি তার ৭ মেয়ে ও ৩ ছেলেকে সুশিক্ষিত করে সমাজে প্রতিষ্ঠিত করেছেন। এও জানা গেছে, তিনি মুক্তিযুদ্ধের সময় মুক্তিযোদ্ধাকে রান্না করাসহ নানা ধরণের সহযোগিতা করেছেন।

অনুষ্ঠান শেষে বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পাভেলুর রহমান শফিক খান জানান, সাংবাদিক আয়শা সিদ্দিকা আকাশী এই বিদ্যালয়ের ছাত্রী। তাই এবারের স্কয়ার গ্রুপ থেকে কীর্তিমতী নারী সাংবাদিক-২০১৫ সম্মাননা পাওয়ায় মাদারীপুরবাসী গর্বিত। তাই তাকে স্কুল থেকে সম্মাননা দেওয়া হবে। যাতে করে মাদারীপুরের নারীরা উৎসাহিত হয়ে এগিয়ে যেতে পারে।


মন্তব্য