কক্সবাজারে বিধ্বস্ত বিমানের ব্ল্যাক-334353 | সারাবাংলা | কালের কণ্ঠ | kalerkantho

kalerkantho

সোমবার । ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৬। ১১ আশ্বিন ১৪২৩ । ২৩ জিলহজ ১৪৩৭


কক্সবাজারে বিধ্বস্ত বিমানের ব্ল্যাক বক্স উদ্ধার

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১০ মার্চ, ২০১৬ ১৪:০৬



কক্সবাজারে বিধ্বস্ত বিমানের ব্ল্যাক বক্স উদ্ধার

কক্সবাজারে বঙ্গোপসাগরের নাজিরারটেক পয়েন্টে বিধ্বস্ত কার্গো বিমানের ব্ল্যাক বক্স উদ্ধার করা হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার সকালে এ ব্ল্যাক বক্স উদ্ধার করা হয়। এদিকে সিভিল এভিয়েশন ও বিমানটি মালিকানা প্রতিষ্ঠানের গঠিত তদন্ত কমিটি ইতিমধ্যে কক্সবাজার পৌঁছেছে। কক্সবাজার বিমানবন্দরের ম্যানেজার সাধন কুমার মোহন্ত জানান, বিধ্বস্ত বিমানের এ ব্ল্যাক বক্স সকালে উদ্ধার করা হয়েছে। এ ছাড়া সিভিল এভিয়েশনের ৩ সদস্যের তদন্ত কমিটি ইতিমধ্যে কক্সবাজার পৌঁছেছেন। বর্তমানে বিধ্বস্ত বিমানটির ঘটনাস্থলে গিয়ে তারা তদন্ত কাজ শুরু করেছে।

এদিক দুর্ঘটনায় নিহত তিনজনের মধ্যে একজনের লাশের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়েছে। বাকি দুজনের লাশের ময়নাতদন্ত বিকেলের মধ্যে সম্পন্ন হতে পারে। কক্সবাজার সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার সুলতান আহমেদ সিরাজী জানান, নিহত তিনজনের মধ্যে ফ্লাইট ইঞ্জিনিয়ার কুলিশ আন্দ্রের (৪০) লাশের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়েছে। বাকি দুজন বিমানের পাইলট মুরাদ (৩৮) ও কো-পাইলট ইভানের (৩৭) লাশের ময়নাতদন্ত এখনও হয়নি। কারণ পুলিশের পক্ষ থেকে ময়নাতদন্তের জন্য কোনো ধরনের কাগজপত্র দেওয়া হয়নি। তিনজনের লাশ কক্সবাজার সদর হাসপাতালের হিমঘরে রয়েছে।

সদর থানার ওসি আসলাম হোসেন জানান, ময়নাতদন্তের জন্য বাকি দুজনের কাগজপত্র শিগগিরই হাসপাতালে দেওয়া হবে। ময়নাতদন্ত শেষ হওয়ার পর লাশ হস্তান্তরের প্রক্রিয়া শুরু হবে। ইতিমধ্যে বিমান কৃর্তপক্ষ লাশ গ্রহণের জন্য কক্সবাজার অবস্থান করছেন। তাদের কাছে লাশ হস্তান্তর করা হবে। কক্সবাজার বন্দর থেকে এক কিলোমিটার পশ্চিমে বঙ্গোপসাগরের নাজিরারটেক সমুদ্র পয়েন্টে বুধবার সকাল সোয়া ৯টায় কার্গো বিমান বিধ্বস্ত হয়। এতে পাইলটসহ তিন বিদেশি নিহত হয়। আহত হয়েছেন একজন বিদেশি। ট্রু এভিয়েশনের কার্গো বিমানটি চিংড়ি পোনা নিয়ে কক্সবাজার থেকে যশোর যাচ্ছিল।

 

মন্তব্য