সুন্দরবনে 'বন্দুকযুদ্ধে' বাহিনী-334325 | সারাবাংলা | কালের কণ্ঠ | kalerkantho

kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ২৯ সেপ্টেম্বর ২০১৬। ১৪ আশ্বিন ১৪২৩ । ২৬ জিলহজ ১৪৩৭


বিপুল পরিমাণ অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার

সুন্দরবনে 'বন্দুকযুদ্ধে' বাহিনী প্রধানসহ ৪ দস্যু নিহত

বিষ্ণু প্রসাদ চক্রবর্ত্তী, বাগেরহাট    

১০ মার্চ, ২০১৬ ১০:০৪



সুন্দরবনে 'বন্দুকযুদ্ধে' বাহিনী প্রধানসহ ৪ দস্যু নিহত

সুন্দরবনে র‍্যাবের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে কুখ্যাত দস্যুদল নয়ন বাহিনীর প্রধানসহ চার দস্যু নিহত হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার সকালে সুন্দরবন পূর্ব বিভাগের বাগেরহাট জেলার শরণখোলা উপজেলাধীন কচিখালী চাঁন্দেরশর এলাকায় এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে।

নয়ন বাহিনীর সঙ্গে প্রায় আধাঘণ্টা ধরে বন্দুকযুদ্ধের একপর্যায়ে দস্যুরা পিছু হটলে র‍্যাব সদস্যরা বন তল্লাশি চালান। এ সময় নয়ন বাহিনীর প্রধান মনির ও তার তিন সহযোগীর গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করা হয়। এ ছাড়া ঘটনাস্থল থেকে দস্যুদের ব্যবহৃত ১৮টি দেশি-বিদেশি আগ্নেয়াস্ত্র ও ৪৫০ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয়।

নিহতরা হলেন : নয়ন বহিনীর প্রধান মনির, বহিনীর উপপ্রধান এনাম এবং অপর দুই সদস্য গিয়াস ও হাসান। তাদের প্রত্যেকের বয়স ৩৫ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে।

র‍্যাব বরিশাল-৮-এর অধিনায়ক লে. কর্নেল ফরিদুল আলম জানান, বনদস্যু নয়ন বাহিনীর সদস্যরা বেশ কিছু দিন ধরে সুন্দরবনের বিভিন্ন নদী-খালে জেলেদের ট্রলারে ডাকাতি করে জাল ও মাছ লুট করে নিচ্ছে- এমন খবরের ভিত্তিতে র‍্যাব সদস্যরা সুন্দরবনের নয়ন বাহিনীর আস্তানা শনাক্ত করেন। গোয়েন্দা তথ্যের ওপর ভিত্তি করে র‍্যাব ও কোস্ট গার্ড সদস্যরা গতকাল বুধবার রাতে সুন্দরবনে অভিযান শুরু করেন।

আজ বৃহস্পতিবার ভোর সাড়ে ৬টার দিকে র‍্যাব ও কোস্ট গার্ডের যৌথ দল সুন্দরবনের কচিখালী ও চাঁন্দেরশর এলাকায় পৌঁছালে বনের ভেতর থেকে দস্যুরা গুলি চালাতে থাকে। এ সময় র‍্যাবও পাল্টা গুলি চালায়। প্রায় আধাঘণ্টা ধরে গোলাগুলির একপর্যায়ে দস্যুরা পিছু হটলে বন তল্লাশি করে নয়ন বাহিনীর প্রধানসহ চার দস্যুর লাশ উদ্ধার করা হয়। দস্যুদের লাশ এবং উদ্ধারকৃত অস্ত্র ও গুলি শরণখোলা থানায় হস্তান্তর করা হবে বলে র‍্যাব জানায়।

 

মন্তব্য