বিশ্ব কিডনি দিবস আগামীকাল-334041 | সারাবাংলা | কালের কণ্ঠ | kalerkantho

kalerkantho

রবিবার । ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৬। ১০ আশ্বিন ১৪২৩ । ২২ জিলহজ ১৪৩৭


বিশ্ব কিডনি দিবস আগামীকাল

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৯ মার্চ, ২০১৬ ১৮:২১



বিশ্ব কিডনি দিবস আগামীকাল

বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো আগামীকাল সারা দেশে বিশ্ব কিডনি দিবস উদযাপিত হবে।
দিবস উপলক্ষে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পাশাপাশি বাংলাদেশ কিডনি ফাউন্ডেশন, ক্যাম্পসসহ বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে।
এ উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক বাণী দিয়েছেন।
বাণীতে রাষ্ট্রপতি বলেন, চিকিৎসা বিজ্ঞানীদের মতে, জন্মগত ত্রুটি, বংশগত রোগ, নেফ্রাইটিস, ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ, অপর্যাপ্ত পানি পান, ব্যাথানাশক ওষুধ সেবনসহ নানাবিধ কারণে বিশ্বে ধীর গতির কিডনি রোগীর সংখ্যা ক্রমাগত বেড়ে চলেছে। এ পরিপ্রেক্ষিতে কিডনি রোগের প্রতিরোধ ও চিকিৎসা সম্পর্কে জনসচেতনতা বৃদ্ধি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। দিবসটি উপলক্ষে কিডনি বিষয়ক নানা কর্মসূচি ব্যাপক জনসচেতনতা বৃদ্ধিতে ইতিবাচক ভূমিকা রাখবে।
বাণীতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, বর্তমান সরকার কিডনি চিকিৎসাসহ সব ধরনের চিকিৎসাসেবার উন্নয়নে বিভিন্নমুখী কর্মসূচি বাস্তবায়ন করে যাচ্ছে। গ্রামে-গ্রামে কমিউনিটি ক্লিনিক প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। সরকার ইউনিয়ন পর্যায়ে ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্র গড়ে তুলেছে। উপজেলা পর্যায়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আধুনিকায়নের ব্যবস্থা করা হয়েছে।
তিনি বলেন, প্রায় সাড়ে ১৬ হাজার কমিউনিটি ক্লিনিক ও ইউনিয়ন স্বাস্থ্যকেন্দ্র গ্রামীণ জনগোষ্ঠীর স্বাস্থ্যসেবা প্রদানে নিয়োজিত রয়েছে। সরকার দেশে গণমুখী স্বাস্থ্যনীতি প্রণয়ন করেছে। স্বাস্থ্যখাতে সরকারের সময়োচিত পদক্ষেপের ফলে কিডনি চিকিৎসা আজ দেশের প্রত্যন্ত এলাকাতেও সহজলভ্য হয়ে উঠেছে। তিনি এজন্য দেশের নিবেদিতপ্রাণ কিডনি চিকিৎসকদের আন্তরিক ধন্যবাদ জানান।
বিশ্ব কিডনি দিবসের উদ্দেশ্য ভয়াবহ কিডনি রোগ সম্পর্কে বিশ্বের মানুষকে সচেতন করা যাতে প্রাথমিক অবস্থায় এই রোগের কারণ নির্ণয় করে কিডনি বিকল প্রতিরোধ করা যায়। এ বছরের বিশ্ব কিডনী দিবসের প্রতিপাদ্য ‘শিশুদের কিডনি রোগঃ শুরুতেই প্রতিরোধ’।
এক হিসাব অনুযায়ি বাংলাদেশে প্রায় দুই কোটিরও অধিক লোক কোন না কোন কিডনি রোগে আক্রান্ত। কিডনি রোগে আক্রান্ত হয়ে প্রতি ঘন্টায় অকাল মৃত্যুবরণ করছে পাঁচ জন লোক। অন্যদিকে কিডনি রোগের চিকিৎসা এতোই ব্যয়বহুল যে, এদেশের শতকরা পাঁচ ভাগ লোকেরও এই ব্যয় বহুল চিকিৎসা চালিয়ে যাবার সাধ্য নেই ।
বাংলাদেশ রেনাল এসোসিয়েশন, পেডিয়াট্রিক নেফ্রোলজি সোসাইটি অভ্ বাংলাদেশ ও কিডনি ফাউন্ডেশনের যৌথভাবে দিবসটি পালনের উদ্যোগ নিয়েছে।
এছাড়া দিবস উপলক্ষে অন্যান্য সংগঠনের মতো ক্যাম্পসের পক্ষ থেকে আগামীকাল কিডনি রোগ প্রতিরোধ বিষয়ক কর্মশালার আয়োজন করা হয়েছে। এ কর্মশালা ও একটি আলোচনা সভা ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সন্টিটিউট বাংলাদেশ (আই.ই.বি) সম্মেলন কক্ষে বিকাল ৩ টায় অনুষ্ঠিত হবে।
এ কর্মশালা ও আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থাকবেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য্য অধ্যাপক ডাঃ আ.আ.ম.স.আরেফিন সিদ্দিক, কর্মশালার উদ্বোধন করবেন বঙ্গ বন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য্য অধ্যাপক ডাঃ কামরুল ইসলাম, ক্যাম্পস এর চেয়ারম্যান ও ল্যাব এইড স্পেশালাইজড হাসপাতাল এর কিডনি বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ডাঃ এম এ সামাদ এ কর্মশালায় মূল বক্তব্য উপস্থাপন করবেন।
এছাড়া দিবসে বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে র‌্যালি, কর্মশালা, সেমিনার, আলোচনা সভাসহ বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে।

মন্তব্য