kalerkantho

শুক্রবার । ২ ডিসেম্বর ২০১৬। ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ১ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


ঝিনাইগাতীতে সড়ক দুর্ঘটনায় আহত স্কুলশিক্ষকের মৃত্যু

শেরপুর প্রতিনিধি    

৯ মার্চ, ২০১৬ ১০:০৭



ঝিনাইগাতীতে সড়ক দুর্ঘটনায় আহত স্কুলশিক্ষকের মৃত্যু

শেরপুর-ঝিনাইগাতী সড়কে ঝিনাইগাতী উপজেলার আহাম্মদনগর এলাকায় যাত্রীবাহী বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ার ঘটনায় আহত এক স্কুলশিক্ষক মারা গেছেন। নিহত ওই স্কুল শিক্ষকের নাম মো. নুরুজ্জামান মোল্লা।

গতকাল মঙ্গলবার রাতে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। নিহত নুরুজ্জামান মোল্লা শেরপুর সদর উপজেলার বাজিতখিলা ইউনিয়নের সুলতানপুর এলাকার মৃত আবুল হোসেনের ছেলে এবং ঝিনাইগাতীর মরিয়মনগর আদিবাসী উচ্চ বিদ্যালয়ের ইসলাম ধর্ম বিষয়ের শিক্ষক ছিলেন।

মরিয়মনগর আদিবাসী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক অঞ্জন আরেং ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, নিহত শিক্ষক নুরুজ্জামান চলমান এসএসসি পরীক্ষার দায়িত্ব পালনের জন্য নিজ বাড়ি থেকে পরীক্ষাকেন্দ্রে  আসার পথে এ দুর্ঘটনা ঘটে। পরে তাঁকে উদ্ধার করে শেরপুর জেলা হাসপাতালে নেওয়া হলে সেকানে অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাঁকে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাতে মারা যান তিনি।

ঝিনাইগাতী থানার ওসি মিজানুর রহমান জানান, মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে শেরপুর থেকে যাত্রীবাহী একটি বাস ঝিনাইগাতীর রাংটিয়া যাওয়ার পথে আহাম্মদনগর নামক স্থানে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পাশের খাদে উল্টে পড়ে। এতে আহত হয় ওই বাসে থাকা ১৩ এসএসসি পরীক্ষার্থীসহ ২০ যাত্রী।

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় আহতদের উদ্ধার করে ঝিনাইগাতী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠায়। পরে আহতদের মধ্যে গুরুতর অবস্থায় এসএসসি পরীক্ষার্থীসহ ১৫ জনকে শেরপুর জেলা হাসপালে ভর্তি করা হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে  স্কুলশিক্ষক নুরুজ্জামান মোল্লাকে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাতে মারা যান তিনি।  

 


মন্তব্য